বেঙ্গল উচ্চাঙ্গসঙ্গীত উৎসব ২৬ ডিসেম্বর শুরু


সব জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে ‘বেঙ্গল উচ্চাঙ্গসঙ্গীত উৎসব ২০১৭’ এর ষষ্ঠতম আসর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। আগামী ২৬ ডিসেম্বর থেকে শুরু হয়ে চলবে ৩০ ডিসেম্বর পর্যন্ত।

এবারের আসর রাজধানীর ধানমণ্ডির আবাহনী মাঠে অনুষ্ঠিত হবে।

২৬ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় প্রধান অতিথি হিসেবে উৎসব উদ্বোধন করবেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে থাকবেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর, বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতের হাইকমিশনার হর্ষবর্ধন শ্রিংলা, বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদের সদস্য সচিব ব্যারিস্টার ফজলে নূর তাপস, আবাহনী লিমিটেডের সভাপতি সালমান এফ রহমান ও স্কয়ার গ্রুপের পরিচালক অঞ্জন চৌধুরী।

প্রতিবারের ন্যায় এবারও বাংলাদেশ ও ভারতের প্রথম সারির উল্লেখযোগ্যসংখ্যক শিল্পী এ আসরে অংশ নেবেন।

এবার উৎসবের প্রথায় পরিবর্তন এসেছে। মরণোত্তর নয়, এ বছর জীবিত গুণীজনকে উৎসব উৎসর্গ করে সম্মান জানানো হচ্ছে। ষষ্ঠ এ আসরটি উৎসর্গ করা হচ্ছে বাংলাদেশের শীর্ষ গবেষক, চিন্তাবিদ ও সংস্কৃতি তাত্ত্বিক ইমেরিটাস অধ্যাপক আনিসুজ্জামানকে।

‘বেঙ্গল উচ্চাঙ্গসঙ্গীত উৎসব ২০১৭’ এর বিষয়ে রোববার রাজধানীর একটি তারকা হোটেলে সংবাদ সম্মেলন করে বেঙ্গল ফাউন্ডেশন। এতে উৎসবের বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরেন বেঙ্গল ফাউন্ডেশন মহাপরিচালক লুভা নাহিদ চৌধুরী।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান আবুল খায়ের, স্কয়ার গ্রুপের পরিচালক অঞ্জন চৌধুরী, ব্র্যাক ব্যাংকের জারা মাহবুব প্রমুখ।

উৎসবের সময়সূচি, প্রবেশপত্র ও নিবন্ধন
২৬ ডিসেম্বর মঙ্গলবার থেকে ৩০ ডিসেম্বর শনিবার পর্যন্ত প্রতিদিন সন্ধ্যা সাতটা থেকে পরদিন ভোর পাঁচটা পর্যন্ত চলবে এ উৎসব।

প্রতিবারের মতো অনলাইনে নিবন্ধনের মাধ্যমে বিনা মূল্যে প্রবেশপত্র সংগ্রহ করা যাবে।

ডিসেম্বরের মাঝামাঝি (সম্ভাব্য ১৮ ডিসেম্বর) সীমিত সময়ের জন্য বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের ওয়েবসাইটে নিবন্ধনের মাধ্যমে প্রবেশপত্র সংগ্রহ করা যাবে।

এ ছাড়া ধানমণ্ডিতে জ্ঞানতাপস আবদুর রাজ্জাক বিদ্যাপীঠে (বাড়ি নম্বর ৬০, সড়ক নম্বর ৭ /এ, ধানমণ্ডি) সশরীরে গিয়েও নিবন্ধন করা যাবে। তবে উৎসব স্থলে কোনো নিবন্ধন করা যাবে না।

প্রতিবারের মতো প্রতিদিন যথারীতি রাত ১২টায় উৎসবের প্রবেশপথ বন্ধ হয়ে যাবে।

তবে ভেন্যুর ধারণক্ষমতা অতিক্রম করলে বা অন্য যেকোনো বিবেচনায় কর্তৃপক্ষ পূর্বঘোষণা ছাড়াই রাত ১২টার আগেই গেট বন্ধ করতে পারে।

এ বছর থেকে উৎসবে যুক্ত হচ্ছে ওয়েস্টার্ন ক্ল্যাসিক্যাল। উৎসবের প্রথম দিন ২৬ ডিসেম্বর সন্ধ্যা সাতটায় কাজাখস্তানের ৫৮ সদস্যের আস্তানা সিম্ফনি ফিলহারমনিক অর্কেস্ট্রার সঙ্গে যুগল পরিবেশনায় অংশ নেবেন গ্র্যামি-মনোনীত প্রখ্যাত বেহালাশিল্পী পদ্মভূষণ ড. এল সুব্রহ্মণ্যন।