শতাধিক হজযাত্রীকে ছাড়াই ঢাকা ছেড়েছে ২ ফ্লাইট


1500364884_596dc054c2648_hajj

সময়মত বিমানবন্দরে পৌঁছাতে না পারায় প্রায় শতাধিক হজযাত্রীকে ছাড়াই ২৮ জুলাই শুক্রবার বিকেলে জেদ্দার উদ্দেশে ঢাকার হযরত শাহজালাল (রহ.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ছেড়েছে সৌদি অ্যারাবিয়ান এয়ারলাইন্সের দুইটি হজফ্লাইট।

সৌদি অ্যারাবিয়ান এয়ারলাইন্সের কাস্টমার সার্ভিসের এক কর্মকর্তা জানান, ‘শুক্রবার বিকাল সোয়া ৫টায় এসভি-৮০৯ ফ্লাইটের ৬৭ জন এবং এসভি- ৮৪৭ ফ্লাইটের ৪০ জন রওনা হতে পারেননি। ফ্লাইট মিস করা যাত্রীরা নো-শো চার্জ দিয়ে পরবর্তী ফ্লাইটে যেতে পারবেন।’

ওই কর্মকর্তা আরও জানান, নির্ধারিত সময়ে হজযাত্রীরা আসতে পারেননি। এ ক্ষেত্রে এয়ারলাইন্সের কোনো ত্রুটি নেই। হজ এজেন্সিগুলোকে আগেই জানানো হয়েছিল ফ্লাইট ছাড়ার ৫ ঘণ্টা আগে রিপোর্ট করতে হবে। কিন্তু কাউন্টার বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর তারা বিমানবন্দরে এসে রিপোর্ট করেন।

হজযাত্রীদের অভিযোগ, হজ এজেন্সিগুলো তাদের নির্ধারিত সময়ের মধ্যে এয়ারপোর্টে হাজির করতে না পারায় এই বিপত্তি ঘটেছে। কিন্তু সেজন্য জনপ্রতি বাড়তি ২৬ হাজার টাকা করে চাওয়া হয়েছে।

এ ব্যাপারে হজ এজেন্সিস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (হাব) মহাসচিব শাহাদাত হোসেন তসলিম বলেন, ‘বাড়তি টাকা যাত্রীদের দেওয়ার কথা নয়। তবে গাফিলতিটা কার তা বিবেচনা করতে হবে। এজেন্সির কোনো গাফিলতি থাকলে অতীতের মতো এবারও ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

প্রসঙ্গত, ২৪ জুলাই থেকে সাউদিয়া এয়ারলাইন্সের হজ ফ্লাইট শুরু হয়েছে। চলবে ২৮ আগস্ট পর্যন্ত। হজ পরবর্তী হাজিদের নিয়ে দেশে ফিরবে ৬ সেপ্টেম্বর থেকে ৬ অক্টোবর পর্যন্ত। এ বছর রাষ্ট্রয়াত্ব বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ও সাউদিয়া এয়ারলাইন্স হজ ফ্লাইট পরিচালনা করছে।

এর মধ্যে ২৫ জুলাই মঙ্গলবার বেলা সোয়া ১১টায় সাউদিয়া এয়ারলাইন্সের ফ্লাইটে (এসভি ৮১১) অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। তবে অল্পের জন্য প্রাণে বেঁচে গেছেন ৩১৩ হজযাত্রী।