ফাইনালে ম্যাচ পাতিয়েছিল ভারত!


চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ফাইনালে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানের কাছে হারের ক্ষত হয়তো এখনও ভুলতে পারেনি ভারত। পাকিস্তানের কাছে ১৮০ রানের বড় ব্যবধানে হারের পরই বিরাট কোহলির সঙ্গে দ্বন্দ্বে জড়িয়ে পদত্যাগ করেছেন প্রধান কোচ অনিল কুম্বলে। সেই রেশ না কাটতেই আবারও ধাক্কা খেল ভারতীয় ক্রিকেট। ফাইনালে ম্যাচ পাতানোর অভিযোগ উঠেছে ভারতীয় ক্রিকেটারদের বিরুদ্ধে।

ভারতীয় ক্রিকেটারদের বিরুদ্ধে ম্যাচ পাতানোর অভিযোগ করেছেন ভারতের সামাজিক ন্যায়বিচার ও ক্ষমতায়নের কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রামদাস আথাওয়ালে। তার দাবি, চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ফাইনালে ইচ্ছে করে হেরেছে ভারত। পুরো দলের বিরুদ্ধে অভিযোগ থাকলেও মূলত বিরাট কোহলি এবং যুবরাজ সিংয়ের দিকেই আঙুল তুলছেন এই ভারতীয় মন্ত্রী।

এ প্রসঙ্গে রামদাস আথাওয়ালে বলেন, ‘বিরাট কোহলি যে নিয়মিত সেঞ্চুরি করে, যুবরাজ যে অতীতে প্রচুর রান করেছে- তারাই কিনা ফাইনালে এমন বড় একটা ম্যাচে রান পাননি? এরা ইচ্ছা করেই পাকিস্তানের বিপক্ষে হেরে গেছে।’

ওই ম্যাচটি নিয়ে তদন্ত করার দাবি জানিয়ে ভারতীয় এই মন্ত্রী বলেন, ‘অনিল কুম্বলে কোচ ছিল। তিনি সরে গেলেন। আমার সন্দেহ ম্যাচটি পাতানো ছিল। খেলোয়াড়রা আমাদের সঙ্গে প্রতারণা করেছে। ম্যাচটি তদন্ত করে দেখা হোক।’

রিপাবলিকান পার্টি অব ইন্ডিয়ার প্রতিষ্ঠাতা রামদাস আরও বলেন, ‘সংখ্যালঘু সম্প্রদায় থেকে জাতীয় দলে ক্রিকেটার নেয়া হোক। দলিতদের জন্য ২৫ শতাংশ কোটা থাকা উচিত। আমার এবং আমার দলের পক্ষ থেকে এটাই চাওয়া।’

গ্রুপপর্বে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানকে হারিয়ে ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিত চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির এবারের আসর শুরু করেছিল ভারত। ‘বি’ গ্রুপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে পাকিস্তানের বিপক্ষে ১২৪ রানের জয় পেয়েছিল বিরাট কোহলির দল। কিন্তু ফাইনালে সেই পাকিস্তনের কাছে হেরেই শিরোপার স্বপ্নভঙ্গ হয়েছে তাদের।

ফাইনালের ওই ম্যাচে ফখর জামান-মোহাম্মদ আমিরদের সামনে দাঁড়াতেই পারেননি ধোনি-কোহলি-যুবরাজরা। ফখর জামানের দুর্দান্ত সেঞ্চুরির পর আমিরের দুর্দান্ত বোলিংয়ে ভারতকে হারিয়ে প্রথমবারের মতো চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির শিরোপা ঘরে তুলেছে সরফরাজ আহমেদের দল। পাকিস্তানের কাছে এই হারের পর থেকেই ভক্ত ও সমর্থকদের তোপের মুখে আছেন ভারতীয় ক্রিকেটাররা।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*