বিশ্ববিদ্যালয়ছাত্রীকে ধর্ষণ: বাড়িতে সাফাতকে পায়নি পুলিশ


Safat

রাজধানীর বনানীতে দুই বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় দায়ের করা মামলার অন্যতম আসামি আপন জুয়েলার্সের মালিকের ছেলে সাফাত আহমেদের বাসায় অভিযান চালিয়েছে পুলিশ। কিন্তু তাকে বাসায় পাওয়া যায়নি।

৯ মে মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে গুলশানে সাফাতের বাড়িতে অভিযান চালানো হয়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা বনানী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবদুল মতিন। তিনি জানান, সাফাতকে পাওয়া যায়নি। তবে তার বাবা দিলদার আহমেদকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে।

এর আগে, এ মামলার আসামিরা যেন দেশত্যাগ করতে না পারে সেজন্য ৮ মে সোমবার বিকেল থেকে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) নির্দেশনায় বিমানবন্দরে সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত ২৮ মার্চ বনানীর ‘দ্য রেইন ট্রি’ হোটেলে সাফাত আহমেদ নামে বন্ধুর জন্মদিনে যোগ দিতে গিয়েই সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার হন দুই তরুণী।

ওই ঘটনায় ৪০ দিন পর ৬ মে শনিবার সন্ধ্যায় বনানী থানায় ৫ জনকে আসামি করে মামলা (মামলা নং ৮) করেন ওই তরুণীরা।

মামলার আসামিরা হলেন- সাদনান সাকিফ, তার বন্ধু সাফাত আহমেদ, নাঈম আশরাফ, সাফাতের ড্রাইভার বিল্লাল ও তার দেহরক্ষী (নাম পাওয়া যায়নি)।