নির্ঘুম রাতে মাশরাফির অবসর সিদ্ধান্ত


মাশরাফি বিন মুর্তজা

 

রাতেই সিদ্ধান্তটা নিয়ে রেখেছিলেন। ম্যাচের টস করতে নেমে মাশরাফি বিন মুর্তজা জানিয়ে দিলেন শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ শেষে এই ফরম্যাটে আর খেলবেন না। তার এমন আচমকা অবসরের ঘোষণায় হতবাক বাংলাদেশ ক্রিকেট অঙ্গন। ম্যাচ ছাপিয়ে তাই বড় হয়ে উঠল মাশরাফির এমন আচমকা অবসরের ঘোষণা।

তার রেশ রইলো সংবাদ সম্মেলনের পুরোটা জুড়েই। মাশরাফির দাবি, খুব ভেবে চিন্তে অবসরের সিদ্ধান্ত নেননি তিনি। অনেকটা হুট করেই তার মনে হয়েছে অবসর নেওয়ার। তাই নিয়ে নিলেন। যদিও সিদ্ধান্ত নেওয়ার রাতটা নির্ঘুমেই কেটেছে মাশরাফির।

এ প্রসঙ্গে মাশরাফি বললেন, ‘সিদ্ধান্তটা নিয়েছি গতকাল রাত দুইটার দিকে, এটা নিয়ে ভাবতে গিয়ে সজাগ থাকতে হয়েছে সেই ভোর পাঁচটা পর্যন্ত। দুপুরে ঘুম থেকে উঠে সবার আগে জানিয়েছি মাকে। এরপর বাবা-স্ত্রী, মামা, ঘনিষ্ট বন্ধু-স্বজনদের জানিয়েছি। মাঠে আসার আগেই জানিয়েছি, বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসানকে। সতীর্থদের জানিয়েছি দুপুর সাড়ে তিনটার দিকে।’

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ত এই ফরম্যাটকে কখনওই উপভোগ করতে পারেননি জানিয়ে বাংলাদেশের বিদায়ী টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক বলেন, ‘আমি আগেও বলেছি, এই সংস্করণ আমি উপভোগ করছিলাম না। পাঁচটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলেছি। আসলে বোর্ড আমাকে অধিনায়ক হিসেবে চেয়েছিল বলেই আমি চালিয়ে গেছি। কিন্তু আমার পায়ের যে অবস্থা, শরীরের যে অবস্থা, তাতে আর পেরে উঠছিলাম না।’

এমন হুট করে নেওয়ার সিদ্ধান্তের নেপথ্যে টিম ম্যানেজম্যান্ট দায়ী? এমন প্রশ্নেরে উত্তরে মাশরাফি বলেন, ‘আমার মনে হয়, এই সময় বিতর্ক তৈরি না করে আমাদের ক্রিকেটের উন্নতির জন্য কাজ করা উচিত। আমাদের ক্রিকেট এগিয়ে যাক। আমার কাছে মনে হয় না, এইসব নিয়ে আলোচনা করার কিছু আছে। টি-টোয়েন্টি সংস্করণে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করেছি, অধিনায়কত্ব করেছি দেশের। এটা অনেক সম্মানের।’

টেস্ট খেলেন না সেই ২০০৯ সালের জুলাইয়ের পর থেকে। টি-টোয়েন্টিকেও বিদায় জানালেন। তবে কি ওয়ানডে থেকেও অবসর নেওয়ার চিন্তা করছেন মাশরাফি? এ প্রসঙ্গে মাশরাফির ভাষ্য, ‘আমি এত চিন্তা করে কাজ করি না। ওয়ানডে আমি এখনও উপভোগ করছি। ওয়ানডে থেকে অবসর নেওয়ার সময় হলে আগেই জানিয়ে দেব।’

মাশরাফির অবসর ঘোষণার দিন ছয় উইকেটের হারের স্বাদ পায় বাংলাদেশ। নিজের সর্বশেষ টি টোয়েন্টি ম্যাচ জয় দিয়ে বিদায় নিতে চান কিনা এই প্রশ্নের জবাবে ৩৩ বছর বয়সী মাশরাফি বলেন, ‘একটা ম্যাচ জিতলে সেটা বাংলাদেশ জিতে। এখানে মাশরাফির চেয়ে দেশ অনেক বড়। আমার মনে হয়, এই ম্যাচ হেরেছি বাংলাদেশ হেরেছে। দেশের চেয়ে বড় কিছুই আর নাই। আমরা শেষটা ভালো করতে চাই।’

সংবাদ সম্মেলনে কথা বলতে মাশরাফিকে বার বার থামতে দেখা যায়, আবেগ সামলে উঠে সব প্রশ্নে উত্তর দেন তিনি। পাশাপাশি পরবর্তী অধিনায়কের প্রতি শুভ কামনাও জানান মাশরাফি।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*