গঙ্গা ও যমুনা পেল মানুষের মর্যাদা


 

ভারতের ঐতিহ্যবাহী নদী গঙ্গা ও যমুনাকে জীবিত মানুষের সমান মর্যাদা দেওয়ার আদেশ দিয়েছে দেশটির উত্তরাখণ্ডের উচ্চ আদালত। কয়েকদিন আগে নিউজিল্যান্ডের হোয়াংগানুই নদীকেও এই মর্যাদা দেওয়ার খবর জানা গিয়েছিল।

গতকাল ২০ মার্চ সোমবার উত্তরাখণ্ডের উচ্চ আদালতে বিচারপতি রাজিব শর্মা এবং বিচারপতি অলোক সিংয়ের বেঞ্চ এক আদেশে নদী দুটির ‘সংরক্ষণ ও প্রাকৃতিক পরিবেশ বজায়’ রাখতে এই আদেশ দিয়েছে।

আদালতের আদেশে বলা হয়েছে, এই ‘আইনি মর্যাদার’ কারণে এখন থেকে নদী দুটিকে দূষিত করলে তা একজন মানুষের ক্ষতি করার সমান বিবেচিত হবে।

রাজ্যটির শীর্ষ দুজন কর্মকর্তাকে নদী দুটির ‘বৈধ অভিভাবক’ নিযুক্ত করে তাদের নদী দুটির প্রতিনিধিত্ব করার আদেশ দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া দেশটির কেন্দ্রীয় সরকারকে আট সপ্তাহের মধ্যে একটি বোর্ড গঠন করে নদী দুটি পরিষ্কার এবং রক্ষণাবেক্ষনের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

ভারতের সংখ্যাগরিষ্ঠ হিন্দু জনগোষ্ঠী নদী দুটিকে পবিত্র বলে গণ্য করা করে থাকে। কোন কোন সম্প্রদায় তাদের দেবী বলেও বিবেচনা করে।

ভারতের হিমালয় পর্বতের গঙ্গোত্রী শৃঙ্গ থেকে উৎপন্ন গঙ্গা নদী দেশটির মধ্য দিয়ে ২৫০০ কিলোমিটার পথ প্রবাহিত হয়ে বাংলাদেশের মধ্য দিয়ে প্রবাহিত হয়ে বঙ্গোপসাগরে মিলিত হয়েছে। আর যমুনা নদী হিমালয়ের যমুনাত্রী শৃঙ্গ থেকে উৎপন্ন হয়ে বঙ্গোপসাগরে মিলিত হয়েছে।

ভারতের পরিবেশ আন্দোলনকারীরা আশা করছেন, আদালতের এই রায় নদী দুটোকে দ্রুত পরিষ্কার করার পথ দেখাবে।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*