‘বাংলাদেশের দর্শকদেরকে মুগ্ধ করতে চাই’


_81638361_amir1_getty

এ যাত্রায় বেঁচে গেছেন মোহাম্মদ আমির। নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ফিরেছেন ক্রিকেটে। ঘরোয়া ক্রিকেটে সমানে পারফর্ম করলেও আন্তর্জাতিকের দরজাটা এখনো দূরে। তবে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ(বিপিএল) নতুন সম্ভাবনা তৈরি করে দিচ্ছে পকিস্তানের এই পেসারের সামনে। এজন্য অবশ্য বাংলাদেশকে ধন্যবাদ দিতেও ভুললেন না। আমির বিপিএলে খেলবেন- শুরুতে খবরটি শুনে চমকে উঠেছেন সবাই। অনেকেই আবার আশায় ছিলেন আমিরের জন্য। শেষপর্যন্ত অনেক জল্পনা-কল্পনা কাটিয়ে আমিরকে দলে ভেড়ায় চট্টগ্রাম ভাইকিংস।

আর এজন্য কৃতজ্ঞ তিনি। জানিয়েছেন, বাংলাদেশের সমর্থকদেরকে নিজের পারফরম্যান্স দিয়ে মুগ্ধ করতে চান। এই মুহুর্তে পাকিস্তানের সবচেয়ে জনপ্রিয় ঘরোয়া লিগ কায়েদ-ই-আজম খেলতে থাকা আমির বুধবার বলেন, ‘বিপিএলে আমাকে যে দলটি পছন্দ করেছে, তাদের প্রতি আমি সত্যি কৃতজ্ঞ। আমি চেষ্টা করবো নিজের শতভাগ দিয়ে খেলার। একই সঙ্গে বাংলাদেশের দর্শকদেরকে নিজের পারফরম্যান্স দিয়ে মুগ্ধ করার।’ (এনডিটিভি) বিপিএলের আসরকেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরার মাধ্যম হিসেবে নিচ্ছেন ২৩ বছর বয়সী পেসার।

mohammad-amir-new

একই সঙ্গে নিজের বর্তমান পারফরম্যান্স নিয়েও সন্তুষ্ট তিনি। আপাতত ইচ্ছাটা কায়েদ-ই-আজম চ্যাম্পিয়ন হওয়ার। বললেন, ‘আমি আমার পারফরম্যান্স নিয়ে সন্তুষ্ট।এটা আমার আত্মবিশ্বাস অনেক বাড়িয়ে দিয়েছে।’ আমিরকে নিতে কম কাঠখড় পোড়াতে হয়নি চিটাগাং ভাইকিংসকে। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড(বিসিবি) আগেই জানিয়েছিলো, আমিরকে চাইলে যে কেউ নিতে পারে। কিন্তু তার জন্য ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিলের(আইসিসি) ছাড়পত্র লাগবে।

আর এই ছাড়পত্র যোগাড় করতে হবে সংশ্লিষ্ট ফ্র্যাঞ্চাইজিকেই। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ২০১০ সালে মোহাম্মদ আসিফ ও সালমান বাটের সঙ্গে মিলে ম্যাচ পাতান আমির। শাস্তিস্বরূপ পাঁচ বছর নিষিদ্ধ থাকতে হয় তাকে। পরে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের(পিসিবি) হস্তক্ষেপে তাকে নিষেধাজ্ঞা কাটানোর আগেই ফেরানো হয় ঘরোয়া ক্রিকেটে। এরই মধ্যে নিজেকে ফিরে পেয়েছেন তিনি। অপেক্ষা এখন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের। তবে বিপিএল অনেকটাই সেই অপেক্ষাকে কমিয়ে আনবে বলে মনে করছেন ক্রিকেট বোদ্ধারা।