যুদ্ধবিরতি ভঙ্গ, পরস্পরকে দুষলো আজারবাইজান-আর্মেনিয়া


 

আজারবাইজান ও আর্মেনিয়ার বিতর্কিত অঞ্চল নাগার্নো-কারাবাখে নভেম্বর থেকে শুরু হওয়া যুদ্ধবিরতি ভঙ্গ করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে সেখানে নিয়োজিত রুশ শান্তিরক্ষী বাহিনী। খবর আল জাজিরার।

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে শনিবার জানানো হয়, গত ১১ ডিসেম্বর হাদরুত জেলায় যুদ্ধবিরতি ভঙ্গের একটি ঘটনা ঘটেছে। তবে কোন পক্ষ এই ঘটনা ঘটিয়েছে তা জানায়নি মন্ত্রণালয়।

গত ১০ নভেম্বর শান্তি চুক্তি হওয়ার পর এই প্রথম রাশিয়ার কাছ থেকে চুক্তি ভঙ্গের কোনো প্রতিবেদন এলো। তবে এই ঘটনায় আজারবাইজান ও আর্মেনিয়া পরস্পরকে দায়ী করেছে।

আজারবাইজানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে রবিবার বলা হয়, নাগার্নো-কারাবাখ সংলগ্ন এলাকায় তাদের ইউনিট আক্রমণের শিকার হলে চার সৈনিক নিহত হন। এদিকে আর্মেনিয়ার পক্ষ থেকে দাবি করা হয়, তাদের ছয় সেনা সদস্য নিহত হয়েছেন।

হাদরুত অঞ্চলে বর্তমানে আর্মেনিয়া নিয়ন্ত্রিত একমাত্র জায়গা হিন তাগের ও খাসাবার্দের কাছাকাছি গ্রামে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছে আর্মেনিয়া।

এ প্রসঙ্গে আজারবাইজানের প্রেসিডেন্ড ইলহাম আলিয়েভ জাতিসংঘ ও ফ্রান্সের কূটনীতিকদের সঙ্গে বৈঠকে বলেন, ‘আর্মেনিয়ার উচিত হবে না এটি আবারও শুরু করা।’

তিনি আরও বলেন, ‘তাদের খুবই সতর্ক হওয়া উচিত এবং কোনো ধরণের সামরিক পদক্ষেপের পরিকল্পনা করা উচিত হবে না। এবার আমরা তাদের পুরোপুরি ধ্বংস করে দেব। কারোর কাছে এটা আর গোপন থাকবে না।’

ছয় সপ্তাহের টানা যুদ্ধের পর রাশিয়ার মধ্যস্ততায় দেশ দুটিতে যুদ্ধবিরতি কার্যকর হয়। যুদ্ধে প্রায় পঁচিশ বছর আর্মেনিয়ার দখলে থাকা নাগার্নো-কারাবাখের বড় একটি অংশ আজারবাইজান দখল করে নেয়।