অনূর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপে প্রযুক্তিগত নিরাপত্তা


48b8988e-0309-4b79-9896-d1cad23bda3c

আর মাত্র দুইদিন পরেই বাংলাদেশের আয়োজনে শুরু হচ্ছে অনূর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপ। ২৭ জানুয়ারি থেকে দেশের চারটি জেলার আটটি স্টেডিয়ামে এই টুর্নামেন্ট চলবে। এই টুর্নামেন্ট উপলক্ষে জেলাগুলোতে নিরাপত্তা ব্যবস্থায় জোর দেওয়া হয়েছে। শনিবার উত্তরার লা মেরিডিয়ান হোটেলে আসন্ন বিশ্বকাপের নিরাপত্তা নিয়ে সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে বৈঠক করেন র্যা বের মহাপরিচালক (ডিজি) বেনজীর আহমেদ। বিশ্বকাপের নিরাপত্তা প্রসঙ্গে বেনজীর আহমেদ সাংবাদিকদের বলেন, ‘বিশ্বকাপ ও এশিয়া কাপ আয়োজনের পূর্ব অভিজ্ঞতা আমাদের রয়েছে। এই অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে খেলার শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা নিশ্চিত করাই আমাদের লক্ষ।’ জাতীয় ও আন্তর্জাতিক প্রেক্ষাপট বিবেচনায় রেখে আসন্ন অনূর্ধ্ব ১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপে প্রযুক্তিগত বিষয়গুলোকে বেশি গুরুত্ব দিয়ে নিরাপত্তা জোরদার করা হবে। সব মিলিয়ে সার্বিক নিরাপত্তায় সন্তোষ প্রকাশ করেছে আইসিসি ও বিসিবির নিরাপত্তা সংশ্লিষ্টরা। তিনি আরও বলেন, ‘সকল হুমকি, জাতীয় ও আন্তর্জাতিক প্রেক্ষাপট বিবেচনায় রেখে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। আর এতে প্রযুক্তিগত নিরাপত্তার বিষয়েও বেশি জোর দেয়া হয়েছে। বিশ্বকাপ উপলক্ষে হোটেল, খেলার ভেন্যুগুলো নিরাপত্তার চাঁদরে ঢেকে দেওয়া হয়েছে। নিরাপত্তা রক্ষায় জিপিএস পদ্ধতি, ভেহিকেল স্ক্যানার, ডগ স্কোয়াড, ভেন্যু অপারেশন কমান্ড স্থাপনসহ বিভিন্ন আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করা হবে।’ উল্লেখ্য, নিরাপত্তার অভাবজনিত কারণ দেখিয়ে অনূর্ধ্ব ১৯ অস্ট্রেলিয়া দল বাংলাদেশে আসতে অস্বীকৃতি জানায়। এছাড়া সিরিজ স্থগিত করেছে অস্ট্রেলিয়া জাতীয় দলও।