ধোনি আইপিএলে আছেন, থাকবেন


ভারতের কেন্দ্রীয় চুক্তিতে জায়গা হয়নি মহেন্দ্র সিং ধোনির। জাতীয় দলে তার খেলা নিয়ে সংশয় থাকলেও আইপিএলে তিনি খেলছেন। এবার তো বটেই, ২০২১ সালেও তাকে খেলাবে চেন্নাই সুপার কিংস। ফ্র্যাঞ্চাইজিটির মালিক ও ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের (বিসিসিআই) সাবেক সভাপতি এন শ্রীনিবাসন বলেছেন তেমনটাই।

ইন্ডিয়া সিমেন্টের ভাইস চেয়ারম্যান ও ম্যানেজিং ডিরেক্টর শ্রীনিবাসন প্রতিষ্ঠানটির এক অনুষ্ঠানে ধোনি প্রসঙ্গে বলেছেন, ‘সবাই বলতে থাকুক কখন সে…কতদিন ধরে সে খেলবে ইত্যাদি। সে অবশ্যই খেলবে, এটা আমি নিশ্চিত করে বলতে পারি। সে এ বছরেও আইপিএলে খেলবে। আগামী বছরে নিলামে উঠলেও তাকে রেখে দেওয়া হবে। তাই এ নিয়ে কারও মনে সংশয় থাকার অবকাশ নেই।’

৩৮ বছর বছর বয়সী ধোনি বিশ্বকাপের পর থেকেই জাতীয় দলের বাইরে রয়েছেন। এই সময়ে ভারতের বেশ কিছু সিরিজ হয়ে গেলেও নিজে দলের বাইরে থাকাটাই শ্রেয় মনে করেছেন। এর পর থেকেই ধোনির ভবিষ্যৎ নিয়ে গুঞ্জন ডালপালা মেলতে থাকে।

সর্বশেষ ভারতের কেন্দ্রীয় চুক্তি থেকে ধোনির বাদ পড়ায় বিষয়টি জোরালো হয়ে উঠেছে। তবে ভারতের কোচ রবি শাস্ত্রী সম্প্রতি ইঙ্গিত দিয়েছেন, জাতীয় দলে ফেরার লড়াইয়েও ফিরবেন ধোনি, যদি এবার আইপিএলে ভালো করতে পারেন।

ভারতের সবচেয়ে সফল অধিনায়ক ধোনি জাতীয় দলের হয়ে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জিতেছেন ২০০৭ সালে। ২০১১ সালে বিশ্বকাপ, ২০১৩ সালে চ্যাম্পিয়নস ট্রফিও জিতেছেন।

সেই ধোনি চেন্নাই সুপার কিংসের নেতৃত্বে ছিলেন আইপিএলের শুরুর আসর থেকে (২০০৮ সাল)। স্পট ফিক্সিংয়ের কারণে এই চেন্নাই সুপার কিংস ২০১৬ ও ২০১৭ সালে নিষিদ্ধ থাকে আইপিএলে। ধোনির অধীনে তিনবার আইপিএলে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে চেন্নাই, ফাইনালে গেছে ৫ বার। এ ছাড়া বিলুপ্ত চ্যাম্পিয়নস লিগ টি-টোয়েন্টির শিরোপা জিতেছে দু্’বার (২০১০ ও ২০১৪ সালে)।