মেলায় ৩ দিনে হাজার কোটি টাকার রাজস্ব আদায়


‘সবাই মিলে দেব কর, দেশ হবে স্বনির্ভর’ স্লোগান এবং ‘কর প্রদানে স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণ, নিশ্চিত হোক রূপকল্প বাস্তবায়ন’- এ প্রতিপাদ্য নিয়ে চলমান সপ্তাহব্যাপী আয়কর মেলার প্রথম তিনদিনে এক হাজার কোটি টাকার ওপরে রাজস্ব আদায় হয়েছে। মেলার আয়োজক জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) এ তথ্য জানিয়েছে।

এনবিআরের তথ্য অনুযায়ী, মেলার প্রথম তিনদিনে আয়কর আদায় হয়েছে এক হাজার ৬৪ কোটি ২৩ লাখ ১৪ হাজার ৯৩৩ টাকা। মেলা প্রাঙ্গণ থেকে তিনদিনে সেবা নিয়েছেন ছয় লাখ ৭৬ হাজার ৩৮২ জন। এর মধ্যে রিটার্ন দাখিল করেছেন দুই লাখ ২১ হাজার ৬৪৯ জন। ১১ হাজার ৯৭৯ জন নতুন ই-টিআইন নিবন্ধন করেছেন।

আগের দুদিনের মতো মেলার তৃতীয় দিন শনিবারও আয়কর মেলা শুরু হয় সকাল ৯টা থেকে, যা বিরতিহীনভাবে চলে বিকেল ৫টা পর্যন্ত। এ সময়ের মধ্যে আয়কর সংগ্রহ হয়েছে ২৬২ কোটি ২ লাখ ৯২ হাজার ২৫১ টাকা। এদিন মেলা প্রাঙ্গণ থেকে সেবা নিয়েছেন ২ লাখ ৭১ হাজার ৯৪০ জন। এর মধ্যে রিটার্ন দাখিল করেছেন ৮৪ হাজার ৫৩৪ জন। ৪ হাজার ১১ জন নতুন ই-টিআইন নিবন্ধন করেছেন।

মেলার দ্বিতীয় দিন শুক্রবার আয়কর সংগ্রহ হয় ৪৭৯ কোটি ১ লাখ ২৮ হাজার ৭৯৭ টাকা। ওই দিন মেলা প্রাঙ্গণ থেকে সেবা নেন ২ লাখ ৬৮ হাজার ৬৮৪ জন। এর মধ্যে রিটার্ন দাখিল করেন ৭৩ হাজার ৭৪৩ জন। আর ৩ হাজার ৬০২ জন নতুন ই-টিআইএন নিবন্ধন করেন।

মেলার প্রথম দিন বৃহস্পতিবার আয়কর সংগ্রহ হয় ৩২৩ কোটি ১৮ লাখ ৯৩ হাজার ৮৮৫ টাকা। মেলা প্রাঙ্গণ থেকে সেবা নেন ১ লাখ ৩৫ হাজার ৭৫৮ জন। এর মধ্যে রিটার্ন দাখিল করেন ৬৩ হাজার ২৭২ জন। ৪ হাজার ৩৬৬ জন নতুন ই-টিআইএন নিবন্ধন করেন।

এ হিসাবে মেলার প্রথম দুদিনের তুলনায় তৃতীয় দিন আয়কর মেলা থেকে কম আয়কর সংগ্রহ হয়েছে। আয়কর কম আসলেও তিনদিনের মধ্যে এদিন সবচেয়ে বেশি মানুষ মেলা থেকে সেবা নিয়েছেন। সেই সঙ্গে বেড়েছে নতুন ই-টিআইএন নিবন্ধনের সংখ্যা।

এনবিআর বলছে, এবার মেলার পরিধি গত বছরের তুলনার কয়েকগুণ বৃদ্ধি করা হয়েছে। মেলায় আয়কর রিটার্ন দাখিল, ই-টিআইন গ্রহণ, ই-পেমেন্ট, ই-ফাইলিং, ই-পেমেন্টের ব্যবস্থা রয়েছে। মেলার বিশেষ আকর্ষণ মোবাইল ব্যাংকিং সুবিধা গ্রহণ করে করদাতারা রকেট, নগদ, বিকাশ ও শিওর ক্যাশের মাধ্যমে আয়কর জমা দিতে পারছেন।