লক্ষণ-স্মিথের ‘স্বপ্নের দলে’ তামিম-সাকিব


ঘরের মাঠে দূর্বার, দুর্দমনীয়, অপ্রতিরোধ্য ভারতীয় ক্রিকেট দল। বিশেষ করে টেস্ট ক্রিকেটে নিজেদের মাঠে ভারতের সাফল্যের হার ঈর্ষণীয়। নিজেদের দেশে সবশেষ ৩২ টেস্টের মধ্যে মাত্র একটিতে হেরেছে বিরাট কোহলির দল। একটানা জিতেছে ১১টি টেস্ট সিরিজে।

ভারতকে হারানোর মতো কোনো দলই যেন নেই। অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড, শ্রীলঙ্কা, দক্ষিণ আফ্রিকা বা নিউজিল্যান্ড- কোনো দলই ভারতের মাটি থেকে টেস্ট সিরিজ জিতে ফিরতে পারেনি। বারবার ফিরতে হয়েছে ব্যর্থ হয়ে।

তাই খানিক মজার ছলেই ভারতের মাটিতে ভারতকে টেস্টে হারানোর জন্য সারা বিশ্বের সব দেশ থেকে মিলিয়ে একটি ‘ড্রিম টিম’ বানিয়েছেন ভারতের সাবেক ক্রিকেটার ভিভিএস লক্ষ্মণ এবং দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক অধিনায়ক গ্রায়েম স্মিথ। যে দলে জায়গা পেয়েছেন বাংলাদেশের দুই ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান ও তামিম ইকবাল।

এই ড্রিম টিমের ইনিংস সূচনার দায়িত্বই থাকবে তামিমের কাঁধে, যেখানে তার সঙ্গী থাকবেন দক্ষিণ আফ্রিকার ডিন এলগার। সাকিব সামাল দেবেন অলরাউন্ডারের জায়গাটি। এছাড়া কেন উইলিয়ামসন, স্টিভেন স্মিথের মতো তারকারা স্বাভাবিকভাবেই রয়েছেন এ দলে। তবে এই একাদশের অধিনায়কের নাম ঘোষণা করেননি স্মিথ ও লক্ষ্মণ।

স্পিন বোলিং অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানকে সঙ্গ দিতে রাখা হয়েছে বর্তমান সময়ের আরেক সেরা পেস বোলিং অলরাউন্ডার বেন স্টোকসকেও। এ দলের উইকেটরক্ষকের দায়িত্বে থাকবেন দক্ষিণ আফ্রিকার তারকা উইকেটরক্ষক কুইন্টন ডি কক।

বোলিং ডিপার্টমেন্টে দুই অলরাউন্ডার সাকিব ও স্টোকস ছাড়াও রাখা হয়েছে অস্ট্রেলিয়ার দুই বোলার- ডানহাতি পেসার প্যাট কামিনস ও অফস্পিনার নাথান লিয়নকে। এছাড়া ইংল্যান্ডের ডানহাতি পেসার জোফরা আর্চার থাকবেন পেস বোলিং ডিপার্টমেন্টে।

লক্ষণ-স্মিথের স্বপ্নের দল
ডিন এলগার (দক্ষিণ আফ্রিকা), তামিম ইকবাল (বাংলাদেশ), কেন উইলিয়ামসন (নিউজিল্যান্ড), স্টিভেন স্মিথ (অস্ট্রেলিয়া), বাবর আজম (পাকিস্তান), সাকিব আল হাসান (বাংলাদেশ), বেন স্টোকস (ইংল্যান্ড), কুইন্টন ডি কক (দক্ষিণ আফ্রিকা), প্যাট কামিনস (অস্ট্রেলিয়া), জোফরা আর্চার (ইংল্যান্ড) এবং নাথান লিয়ন (অস্ট্রেলিয়া)।