সম্ভাব্য সব উপায়ে ভারতকে জবাব দেয়া হবে : ইমরান খান


পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছেন, কাশ্মীর ইস্যুতে ভারতকে সম্ভাব্য সমস্ত উপায়ে জবাব দেয়া হবে, তবে তিনি জোর দিয়ে বলেন, ইসলামাবাদ ভারতের সঙ্গে কোনো যুদ্ধ চায় না।

পাকিস্তানের জাতীয় প্রতিরক্ষা ও শহীদ দিবস উপলক্ষে এক ভাষণে ইমরান খান বলেন, কাশ্মীর ইস্যুতে যদি কোনো বিপর্যয় নেমে আসে তাহলে তার জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের নিরাপত্তা দায়ী থাকবে।

তিনি বলেন, আমি বিশ্বকে জানিয়েছি যে, পাকিস্তান যুদ্ধ চায় না তবে পাকিস্তানের ভৌগলিক অখণ্ডতা ও নিরাপত্তার ওপরে যখন চ্যালেঞ্জ দেখা দেবে তখন পাকিস্তান নীরব থাকতে পারে না।

পাক প্রধানমন্ত্রী বলেন, শত্রুর যেকোনো আগ্রাসন ব্যর্থ করে দেয়ার জন্য আমরা সম্ভাব্য সব রকমের উপায় অবলম্বন করতে প্রস্তুত রয়েছি। আর ধরনের পরিস্থিতি যদি দেখা দেয় তাহলে বিশ্বসম্প্রদায়কে সেই বিপর্যয়ের জন্য দায়ী থাকতে হবে।

গত ৫ আগস্ট ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীরের স্বায়ত্তশাসন কেড়ে নিয়ে নরেন্দ্র মোদি সরকার রাজ্যটিকে দ্বিখণ্ডিত করেছে এবং ভারতের সঙ্গে একীভূত করে নিয়েছেন। এরপর থেকে কাশ্মীরে কারফিউ জারি করা হয়েছে এবং সেখানকার জনগণের চলাফেরায় কোন রকমের স্বাধীনতা নেই।

পাশাপাশি জম্মু-কাশ্মীরের সব রকমের যোগাযোগ ব্যবস্থা বিচ্ছিন্ন রয়েছে। আন্তর্জাতিক বিভিন্ন মানবাধিকার সংস্থা বলছে- কাশ্মীরে মানবাধিকার পরিস্থিতি চরম আকার ধারণ করেছে।

কাশ্মীরের মর্যাদা ছিনিয়ে নেয়ার পর ভারত এবং পাকিস্তানের মধ্যে প্রচণ্ড বাগযুদ্ধ শুরু হয়েছে। কাশ্মীর ইস্যুকে কেন্দ্র করে দেশ দুটির মধ্যে ইতোমধ্যে তিনবার যুদ্ধ হয়েছে।