নেইমারকে বার্তা : জিততে হলে রিয়ালে যাও


গত বছর পাঁচ শিরোপা জয়ের অবিস্মরণীয় রেকর্ড গড়েছিল রিয়াল মাদ্রিদ। কিন্তু সেই ফর্ম আর ধরে রাখতে পারেনি এবার। নতুন মৌসুমের শুরু থেকেই বাজে খেলতে থাকে জিনেদিন জিদানের দল। বিশেষ করে কোপা ডেল রে এবং স্প্যানিশ লা লিগায় বাজে খেলায় চ্যাম্পিয়ন্স লিগে এবার ফেভারিট ছিল না রিয়াল মাদ্রিদ।

কিন্তু এবারের আসরের হট ফেভারিট প্যারিস সেইন্ট জার্মেইকে (পিএসজি) টানা দুই লেগে পরাজিত করেই চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টার ফাইনালে জায়গা করে নিয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। আর লস ব্ল্যাঙ্কোসদের কাছে পিএসজির পরাজয় ইনজুরিতে থাকা নেইমারের জন্য একটা বার্তাও যেন! চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিততে হলে রিয়াল মাদ্রিদের সঙ্গে চুক্তি-স্বাক্ষর করতে হবে…।

বর্তমান বিশ্ব ফুটবলের অন্যতম প্রতিভাবান তারকা নেইমার। বার্সেলোনা ছেড়ে পিএসজিতে যোগ দেওয়ার পর থেকেই গুঞ্জন শুরু হয় যে, আবারও লা লিগায় ফিরবেন এই ব্রাজিলিয়ান তারকা। এবার রিয়াল মাদ্রিদের জার্সিতে।

গত বছরের ডিসেম্বরে রিয়াল মাদ্রিদের সভাপতি ফ্লোরেন্তিনো পেরেজ তো সাফ জানিয়ে দিয়েছিলেন যে, ‘রিয়ালে যোগ দিয়েই সে (নেইমার) ব্যালন ডি’অর জিতবে। মাদ্রিদের হয়ে খেললে ব্যালন ডি’অর জেতাটা খুব সহজ হয়ে যায়।’ রোনালদো-রামোসদের কাছে এবার দুই লেগে হারায় নিশ্চিত পেরেজের সেই কথাগুলোই মনে পড়বে নেইমারের!

এদিকে টানা দুই লেগ দাপটের সঙ্গে জিতে পিএসজিকেও একটা বার্তা দিয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। আর তা হলো, ফ্রান্সে রাজত্ব করলেও ইউরোপিয়ান ফুটবলে শ্রেষ্ঠত্ব প্রদর্শনের সময় এখনও আসেনি তাদের। ইউরোপের বাজার দখল করার জন্য হঠাৎ করেই চমকে দেয় প্যারিসের ক্লাবটি। বিশেষ করে গত গ্রীষ্মকালীন দলবদলে তো হৈ চৈ তৈরি করে দেয় পিএসজি।

২২২ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে বার্সেলোনা থেকে নেইমারকে দলে ভেড়ায় তারা। মোনাকো থেকে কিলিয়ান এমবাপ্পেকে কেনে আনে রেকর্ড পারিশ্রমিকের বিনিময়ে। উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে নতুন মৌসুমের সূচনাটা বেশ ভালোভাবেই করেছিল উনাই এমেরির দল। কিন্তু বড় মঞ্চে রিয়াল মাদ্রিদের সঙ্গে শেষ ষোলর লড়াইয়েই বড় ধরনের একটা ধাক্কা খায় তারা।

প্রথম লেগে ভালো খেলেও শেষ মুহূর্তে ছন্দ ধরে রাখতে পারেনি প্যারিস জায়ান্টরা। দ্বিতীয় লেগের আগেই পিএসজির হেরে যাওয়ার ইঙ্গিত পাওয়া গিয়েছিল, যখন ইনজুরিতে পড়ে যায় দলের সেরা তারকা নেইমার।