‘অযৌক্তিক আচরণে’র দায়ে ভাঙল মি. বিনের সংসার !


কৌতুক অভিনেতা রোয়ান এটকিনসন। ডাকনাম রো। দর্শকদের কাছে যিনি মি. বিন নামেই পরিচিত। সম্প্রতি তাদের দীর্ঘ ২৪ বছরের সংসার জীবনে ছেদ পড়েছে। মি. বিন ১৯৯০ সালে সুনেত্রা শাস্ত্রীর সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছিলেন। সম্প্রতি তাদের বিবাহ বিচ্ছেদের আবেদন মঞ্জুর করেছেন আদালত।

তাদের ২৪ বছরের সংসার বিচ্ছেদ হয় মাত্র ৬৫ সেকেন্ডের শুনানিতে। বেনজামিন এবং লিলি নামে রোয়ান-সুনেত্রা’র ঘরে দুইটি সন্তান রয়েছে। গত বছর থেকেই তারা দু-জন আলাদা বসবাস করছিলেন বলে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের বরাত দিয়ে শোনা যাচ্ছিল।

মি. বিন গত ১৮ মাস ধরে ৩২ বছর বয়সী তারকা লুইস ফোর্ডের সঙ্গে চুটিয়ে প্রেম করছেন। এ বিষয়টিকে তাঁর সাবেক স্ত্রী  বিবিসির প্রাক্তন মেকআপ শিল্পী স্ত্রী সুনেত্রা শাস্ত্রী ‘অযৌক্তিক আচরণ’ বলেছেন। আর এই অযৌক্তিক আচরণকে যৌক্তিক মনে করে আদালত বিচ্ছেদের রায় দিয়েছেন। তবে বিবাহ বিচ্ছেদের রায় পড়ার সময় আদালতে উপস্থিত ছিলেন না রোয়ান-সুনেত্রা।

ইংলিশ অভিনেতা, কমেডিয়ান এবং নাট্যকার রোয়ান এটকিনসন ১৯৯০ সালে ইংল্যান্ডের একটা টিভি সিরিজে মি. বিন চরিত্রে হাজির হন। এই সিরিজ এবং এর সঙ্গে রোয়ান এতটাই জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন যে তার আসল নাম ছাপিয়ে তিনি মি. বিন নামেই সবার কাছে অধিক পরিচিত হয়ে ওঠেন। মি. বিন ছাড়াও এ সময় তিনি দ্য ব্ল্যাক অ্যাডার এবং ফানি বিজনেসসহ বেশ কয়েকটি তুমুল জনপ্রিয় টিভি সিরিজে নিয়মিত অভিনয় করেন।

২০০৫ সালের রম্যদর্শকদের ভোটে ব্রিটিশ কমেডি ইতিহাসের সর্বকালের সেরা ৫০ কমেডিয়ানের তালিকায় স্থান পেয়েছিলেন মি. বিন।