অবশেষে জয়ে ফিরল বার্সেলোনা


Messi 06 12 17 596650331
 

অবশেষে জয়ে ফিরল বার্সেলোনা। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে টানা দুই ম্যাচে ড্র করার পর মঙ্গলবার গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে কাতালান ক্লাবটি ২-০ গোলে হারিয়েছে স্পোর্টিং লিসবনকে। সেইসঙ্গে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়েই ইউরোপ সেরার এই টুর্নামেন্টের শেষ ষোলর টিকিট কাটল আর্নেস্তো ভালভার্দের শিষ্যরা।

নিজেদের মাঠ ন্যু ক্যাম্পে তুলনামূলক দুর্বল স্পোর্টিং লিসবনের বিপক্ষে ম্যাচেও মেসিকে ছাড়াই মূল একাদশ সাজায় বার্সেলোনা। ম্যাচের শুরু থেকেই দাপট দেখাতে থাকে স্বাগতিকরা। কিন্তু প্রতিপক্ষের জালে বল জড়াতে পারেনি কাতালানদের আক্রমণভাগ। এর ফলে গোলশূন্য ড্র নিয়েই বিরতিতে যায় দুই দল।

দ্বিতীয়ার্ধের ৫৯ মিনিটে প্রথম গোলের দেখা পায় বার্সেলোনা। ডেনিস সুয়ারেজের কর্নার থেকে দারুণ এক হেডে গোল করে স্বাগতিক সমর্থকদের উচ্ছ্বাসের জোয়ারে ভাসান পাকো আলকাসের। নির্ধারিত সময়ে আর কোনো গোল না হলে এক গোলের জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ার স্বপ্ন দেখছিল বার্সার সমর্থকরা।

কিন্তু ম্যাচের অতিরিক্ত সময়ে নিজেদের ভুলেই গোল খেয়ে বসে স্পোর্টিং লিসবন। সুয়ারেজের ক্রস ঠেকাতে গিয়ে নিজেদের জালেই বল পাঠান বার্সেলোনারই সাবেক রক্ষণসৈনিক জেরেমি মাথিউ।

এর ফলে চলতি মৌসুমে সবধরনের প্রতিযোগিতামূলক টুর্নামেন্টে ষষ্ঠ আত্মঘাতী গোল পায় বার্সেলোনা! গত সেপ্টেম্বরে স্পোর্টিং লিসবনের বিপক্ষে প্রথম লেগের ম্যাচটিও বার্সেলোনা জিতেছিল একমাত্র আত্মঘাতী গোলে!

চলতি মৌসুমে সবধরনের প্রতিযোগিতামূলক টুর্নামেন্টে বার্সেলোনার হয়ে সর্বোচ্চ ১৭ গোল করেছেন লিওনেল মেসি। আর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ছয় গোল এসেছে প্রতিপক্ষের খেলোয়াড়দের সৌজন্যে! কাতালানদের উরুগুইয়ান স্ট্রাইকার লুইস সুয়ারেজেরও গোলও আত্মঘাতীর সমান ছয়টি।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*