ফাঁস হলো ব্যালন ডি’অর জয়ীর নাম!


ফুটবলে এখন মেসি-রোনালদোর রাজত্ব। অন্তত ব্যালন ডি’অর জয়ের তালিকাটার দিকে তাকালে সেটা খুব সুস্পষ্ট। কেননা, গত নয় বছর ধরেই যে, এই পুরস্কারটাকে ভাগাভাগি করে নিচ্ছেন তারা!

এবার তাদের সঙ্গে ব্যালন ডি’অরের সংক্ষিপ্ত তিনের তালিকায় আছেন নেইমারও। তবে ব্রাজিলিয়ান তারকা নেইমার কিংবা আর্জেন্টিনার মেসির হাতে নয়, এবারও ফ্রান্স ফুটবল ম্যাগাজিন স্বীকৃত বর্ষসেরা ফুটবলারের পুরস্কার জিতলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো!

হ্যাঁ, খোদ রিয়াল মাদ্রিদের সভাপতি ফ্লোরেন্তিনো পেরেজের মুখ থেকেই এসেছে এই ঘোষণা। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘রোনালদো আমাদের অনেক বড় প্রতীক। আমাদের ক্লাব ইতিহাসের সর্বোচ্চ গোলদাতাও সে। কিছুদিন আগে দ্বিতীয়বারের মতো ফিফার সেরা ‘দ্য বেস্ট’ অ্যাওয়ার্ড জিতেছে রোনালদো। এই সপ্তাহে সে পঞ্চম ব্যালন ডি’অর জিততে যাচ্ছে।’

এতেই বিষয়টা খুব পরিস্কার যে, আগামী সাত তারিখেই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী লিওনেল মেসিকে ছুঁয়ে ফেলতে যাচ্ছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। কেননা তার আগে সর্বোচ্চ পাঁচবার এই পুরস্কার জেতেন এলএম টেন। এবার লিওনেল মেসির রেকর্ডেই ভাগ বসাতে চলেছেন সিআর সেভেন।

যে ফুটবলারই এই পুরস্কার জেতেন না কেন? আগে থেকেই তাকে ইঙ্গিত দিয়ে রাখা হয়। এই তথ্যটা স্প্যানিশ গণমাধ্যম অবশ্য পেরেজের আগেই ফাঁস করে দিয়েছে। শুধু তাই নয়, তাদের দাবি রোনালদোর এমন অর্জনে লিওনেল মেসিও পর্তুগীজ সুপারস্টারকে অভিনন্দন জানিয়েছেন!

২০১০ সাল থেকে ফিফার ‘ওয়ার্ল্ড প্লেয়ার অব দ্য ইয়ার’ এবং ফ্রান্স ফুটবল সাময়িকীর ‘ব্যালন ডি’অর’ চুক্তি অনুযায়ী এক হয়ে যায়। মাত্র ছয় বছর একসঙ্গে চলার পর গত বছরই আলাদা হয় পুরস্কার দুটি। আলাদা হওয়ার প্রথমবারই ব্যালন ডি’অরের চতুর্থ পুরস্কারটা নিজের শোকেসে তুলেন রোনালদো। গত মৌসুমটা স্বপ্নের মতো কাটানোর পর এবারও তাই এই পুরস্কারের অন্যতম দাবিদার সিআর সেভেন।

তবে লিওনেল মেসি দলীয় কোনো সাফল্য না পেলেও ব্যক্তিগত পারফরম্যান্সে আলো ছড়িয়েছেন ঠিকই। যে কারণে ইউরোপীয় বর্ষসেরা এই পুরস্কার জয়ের দৌড়ে শুরু থেকেই এগিয়ে রয়েছেন এলএম টেন। শুধু তাই নয়, সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে এ নিয়ে মেসির একটি ছবি ভাইরালও হয়েছে। ছবিটি ফ্রান্স ফুটবল সাময়িকীর ডিসেম্বর সংখ্যার কাভার পেজ। যে সংখ্যাটি প্রকাশিত হয় ডিসেম্বরের আট তারিখে। যে ছবির পাশে লেখা ব্যালনডি’অর বিজয়ী!

অনেকেই বলছেন, এই কাভার পেজের মাধ্যমে ফ্রান্স ফুটবল সাময়িকী এক মাস আগেই সম্ভাব্য বিজয়ীর নাম প্রকাশ করে দিয়েছে। কেউ কেউ আবার এটাকে নকল বলেও মন্তব্য করেছেন। তবে রোনালদোকে টপকে সত্যিই যদি ব্যালন ডি’অর জিতে যান মেসি তাহলেও অবাক হওয়ার কিছুই থাকবে না!