রোহিঙ্গা ইস্যুতে বিশ্ব সম্প্রদায় অন্ধ ও বধির: এরদোয়ান


recep-tayyip-erdogan-464749914

মিয়ানমারের রাখাইন অঞ্চলে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে সহিংসতায় বিশ্ব সম্প্রদায়ের নিরবতার তীব্র সমালোচনা করে হামলার নিন্দা জানিয়েছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তায়িপ এরদোয়ান। তিনি বিশ্ব সম্প্রদায়ের এ নিরবতা পালনকে রোহিঙ্গা মুসলিমদের সঙ্গে ‘অন্ধ ও বধির’ আচরণ হিসেবে উল্লেখ করেছেন।

এ ছাড়া বিশ্ব সম্প্রদায়কে মিয়ানমারে চলমান রোহিঙ্গা সংকটের সমাধানে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান এ নেতা। আন্তর্জাতিক অঙ্গনে তুরস্ক এ সমস্যা উত্থাপন করবে বলেও জানান তিনি।

প্রেসিডেন্ট হিসেবে তিন বছর পূর্তি উপলক্ষে দেয়া টেলিভিশন ভাষণে তিনি এ সব কথা বলেন। এরদোয়ান বলেন, ‘১৯ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিতব্য জাতিসংঘের সাধারণ সভায় এটা আমাদের এজেন্ডার মধ্যে অন্তর্ভুক্ত থাকবে।’

এর আগে গত বছর প্রকাশিত জাতিসংঘের একটি প্রতিবেদনে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে মিয়ানমারের নিরাপত্তাবাহিনীর আগ্রাসনকে মানবাধিকার লঙ্গন হিসেবে অভিহিত করে। একই বছরের অক্টোবরে দেশটির নিরাপত্তাবাহিনীর পরিচালিত একটি অভিযানে প্রায় ৪০০ জনের বেশি রোহিঙ্গা মুসলিম নিহত হয় বলে জানিয়েছে স্থানীয়রা।

জাতিসংঘের প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, অভিযানের সময় নিরাপত্তাবাহিনী ধর্ষণ, শিশু নির্যাতনসহ নির্বিচারে হত্যাকাণ্ড চালিয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ২৪ অগাস্ট বৃহস্পতিবার গভীর রাতে রাখাইনে প্রায় ৩০টি পুলিশ চেকপোস্টে একযোগে হামলার পর থেকেই উত্তেজনা বিরাজ করছে অঞ্চলটিতে। এ সময় মিয়ানমার পুলিশের কর্মকর্তাসহ প্রায় শতাধিক রোহিঙ্গা মুসলিম নিহত হয়। সেখানে মিয়ানমারের নিরাপত্তাবাহিনীর ছোড়া মর্টার শেল ও মেশিনগানের গুলিতে ঘরবাড়ি ধ্বংস হয়ে যাওয়ায় হাজার হাজার রোহিঙ্গা বাংলাদেশের অনুপ্রবেশের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।