মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূতকে ডেকে যৌথ অভিযানের প্রস্তাব বাংলাদেশের


mayanmarer-rasto-dot-2039015691

মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে সাম্প্রতিক সংঘর্ষের পর দেশটির নিজেদের সন্ত্রাসীদের বাঙালি হিসেবে অভিহিত করে তাদের পত্র-পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ করায় বাংলাদেশ গভীরভাবে উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়েছে। এ ছাড়া দেশটিতে সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে নিরাপত্তা বাহিনীর মাধ্যমে যৌথ অভিযানের প্রস্তাব দিয়েছে বাংলাদেশ।

২৮ আগস্ট সোমবার দুপুরে ঢাকায় নিযুক্ত মিয়ানমারের ভারপ্রাপ্ত রাষ্ট্রদূত অং মিনকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে ডেকে বাংলাদেশের উদ্বেগের বিষয়টি আনুষ্ঠানিকভাবে জানানো ও যৌথ অভিযানের প্রস্তাব দেওয়া হয়।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মহাপরিচালক (দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া অনুবিভাগ) মঞ্জুরুল ইসলামের সঙ্গে বৈঠক করেন মিয়ানমারের ভারপ্রাপ্ত রাষ্ট্রদূত অং মিন। সে সময় বাংলাদেশের পক্ষ থেকে দেশটিতে চলমান সহিংসতা নিরসনে ইসলামি জঙ্গি, আরাকান আর্মি ও অন্য যেকোনো শক্তির বিরুদ্ধে নিরাপত্তা বাহিনীর মাধ্যমে যৌথ অভিযানের প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একজন জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা জানান, বাংলাদেশ ও মিয়ানমার সীমান্তে দুই দেশের নিরাপত্তা বাহিনীর যৌথ অভিযানের ব্যাপারে আজ মিয়ানমারকে সুনির্দিষ্টভাবে আনুষ্ঠানিক প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। নিরাপত্তা নিয়ে মিয়ানমারের যে উদ্বেগ রয়েছে, তা দূর করতে মিয়ানমারকে সহযোগিতা করতে চায় বাংলাদেশ।