পুলিশ এখন আওয়ামী লীগের সিকিউরিটি: রিজভী


rizvi_121812

সমাবেশের জন্য বাংলাদেশের পুলিশকে এখন আওয়ামী লীগের পারসোনাল সিকিউরিটিতে পরিণত করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল করিব রিজভী।

মঙ্গলবার রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন তিনি।

রিজভী বলেন, ‘আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেছেন-রাজধানীতে সমাবেশ করতে দেওয়ার ক্ষমতা ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি)।  আওয়ামী লীগ নেতারা কী জনগণকে কাঁচকলার রাজনীতি শেখাচ্ছেন? জনগণ মনে হয় কিছুই বোঝে না?’

‘সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বিএনপিকে সমাবেশ করতে দেওয়া হয়নি। কয়েকদিন আগে এরশাদের জাতীয় পার্টি প্রায় ৫০টি হাতি ও ঘোড়া নিয়ে সমাবেশ করেছে। আর আজ (মঙ্গলবার) আওয়ামী লীগ রাজধানীতে ঢাক-ঢোল পিটিয়ে অহরহ সমাবেশ করছে। আজকেও তাদের (আওয়ামী লীগ) সমাবেশের জন্য পুলিশের পক্ষ থেকে ঘোষণা দিয়ে ঢাকা শহরের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পথ-ঘাট বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। আওয়ামী লীগের সমাবেশের জন্য পুলিশকে এখন পারসোনাল সিকিউরিটিতে পরিণত করা হয়েছে।’

পিরোজপুর জেলার জিয়ানগর উপজেলার নাম পরিবর্তন প্রসঙ্গে বিএনপির এই মুখপাত্র বলেন, ‘প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান তার আমলে জিয়ানগরে নৌথানা প্রতিষ্ঠা করেন এবং পরবর্তীতে একে একটি পূর্ণাঙ্গ থানায় উন্নীত করেন। ২০০২ সালে সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার আমলে এটিকে উপজেলায় উন্নীত করে  জিয়ানগর নামকরণ করা হয়।’

‘সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রয়াত জিয়াউর রহমানের নাম থাকার কারণেই এটি সরকারি আক্রমণের শিকার হলো’ অভিযোগ করে তিনি বলেন, ‘প্রতিহিংসা কত ভয়াবহ রূপ নিলে এ ধরনের সভ্যতা বিবর্জিত আক্রোশমূলক সিদ্ধান্ত নিতে পারে সরকার।’

‘বিএনপির পক্ষ থেকে আমি সরকারের এই প্রতিহিংসামূলক সিদ্ধান্তের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। একই সঙ্গে অবিলম্বে জিয়ানগর নাম বদলের সিদ্ধান্ত পরিবর্তনের জন্য আহ্বান জানাচ্ছি,’ যোগ করেন রিজভী।

সংবাদ সম্মেলনে অন‌্যদের মধ্যে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবদুস সালাম, সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, কেন্দ্রীয় নেতা এম এ মালেক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।