আইএসের হাতে নিউক্লিয়ার বোমা!


US

রাশিয়ার সঙ্গে সম্পর্ক রয়েছে, এমন সন্ত্রাসী গোষ্ঠী সুন্নিপন্থী সশস্ত্র সংগঠন আইএসের কাছে নিউক্লিয়ার বোমা বিক্রির চেষ্টা করেছিলো বলে দাবি করা হয়েছে অ্যাসোসিয়েট প্রেসের(এপি) এক প্রতিবেদনে। এপির ওই অনুসন্ধানী প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত পাঁচ বছরে সন্ত্রাসী গোষ্ঠীটি আইএসের কাছে তেজস্ক্রিয় বোমা বিক্রির চেষ্টা করলেও তা এফবিআই এবং মোলদোভান কর্মকর্তাদের প্রচেষ্টায় ব্যর্থ হয়। তারপরও উড়িয়ে দেয়া যাচ্ছে না আইএস এর কাছে পরমাণু অস্ত্র থাকার আশঙ্কা।

ওই সন্ত্রাসীদের অনেকে পালিয়ে গেলেও অনেককেই এর শাস্তি স্বরুপ জেলে রয়েছেন। আর পালিয়ে যাওয়া সন্ত্রাসীরা আসলে কোন তেজস্ক্রিয়া বোমা বিক্রিতে সক্ষম হয়েছিলেন কিনা অথবা তাদের কাছ থেকে কেউ বোমা কিনেছেন কিনা; তা এখনও স্পষ্ট নয়। একে আশঙ্কা আকারেই দেখছেন মালদোভান পুলিশ এবং বিচারিক কর্মকর্তারা।

মালদোভান কর্মকর্তারা বলেছেন, তাদের রেকর্ড করা বেশিরভাগ ফোন কলেই দেখা গেছে ওই সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর লক্ষ্য ছিল যুক্তরাষ্ট্র।

এক তদন্ত কর্মকর্তা এপিকে জানিয়েছেন, এক ইসলামিক ক্রেতার সাথে কথাবার্তায় এ বিষয়টি জানা গেছে যে সন্ত্রাসী গোষ্ঠীটি চেয়েছিলেন তারা যেন যুক্তরাষ্ট্রের উপর আক্রমণ চালায়।

রাশিয়ার নিরাপত্তা বাহিনীর উপর গবেষণা করা হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর ম্যাথিউ বান বলেন, ইসলামিক স্টেটের উত্থানের সময়ে নিউক্লিয়ার বোমার পাচারকারীদের সাথে সঠিক ক্রেতার যোগাযোগ হওয়ার বিষয়টি আতঙ্কজনক।

গত মে মাসে আইএস কর্তৃক প্রকাশিত ম্যাগাজিন ডাবিকে দাবি করা হয়, তাদের সমর্থকরা পাকিস্তানের অস্ত্র বিক্রেতাদের থেকে একটি নিউক্লিয়ার যন্ত্র কিনেছেন। ওই অস্ত্র বিক্রেতাদের সাথে দেশটির দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তাদের যোগাযোগ রয়েছে এবং মাদক পাচারকরীদের মাধ্যমে ওই যন্ত্রটি যুক্তরাষ্ট্রে নেয়া হয়েছে।