বিভিন্ন দেশের রেড অ্যালার্ট জারি দুঃখজনক : শেখ হাসিনা


PM_bg01_2014_691854264

জঙ্গিবাদের নামে বাংলাদেশে পশ্চিমা দেশগুলোর নাগরিকদের ওপর রেড অ্যালার্ট জারিকে দুঃখজনক বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ঢাকায় একজন ইতালীয় নাগরিক খুন হওয়ার পর অস্ট্রেলিয়া, যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশে তাদের নাগরিকদের সতর্ক করে রেড অ্যালার্ট দেওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে এ কথা বলেন তিনি।

তিনি বলেন, বাংলাদেশই শুধু নয়, এখন বিশ্ব জুড়েই এমন ভীতির পরিবেশ তৈরির চেষ্টা চলছে।বাংলাদেশের মানুষ শান্তিতে বিশ্বাস করে কোনো জঙ্গিবাদে বিশ্বাস করে না, ঘোষণা দেন প্রধানমন্ত্রী। স্থানীয় সময় মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নিউইয়র্কে সাংবাদিক সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি। জাতিসংঘ সাধারণ অধিবেশনে যোগ দিতে গত ২৩ সেপ্টেম্বর থেকে নিউইয়র্ক রয়েছেন শেখ হাসিনা।

তিনি প্রশ্ন করেন, ‘এই নিউ ইয়র্ক শহরেও আওয়ামী লীগ নেতা নজমুলকে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। তাই বলে কি এই সিটিতে রেড অ্যালার্ট জারি হয়েছিল?’ঢাকায় ইতালীয় এক নাগরিক খুন হওয়ার ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ওই ঘটনার পর বিএনপি’র এক নেতা যেভাবে কথা বলছেন, তাতে সন্দেহ হচ্ছে তিনি নিজেই এর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট কি না। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে তা বেরিয়ে আসতে পারে। ঢাকায় ফিরেই তিনি এই ব্যবস্থা নেবেন।

শেখ হাসিনা বলেন, একটি রাজনৈতিক দল বা গোষ্ঠী মানুষ পুড়িয়ে মারে। মানুষ খুন করে একটা অস্বাভাবিক অবস্থা সৃষ্টি করতে চায়।

তিনি বলেন, একজন বিদেশি নাগরিক মারা যাওয়ায় সত্যি আমরা দুঃখিত। এটি একটি দুঃখজনক ঘটনা। কিন্তু ওই ঘটনার পরপরই আমরা বিএনপির এক নেতাকে তৎপর দেখলাম। তাতে সন্দেহ হয়।

তাকে ধরে ইন্টেরোগেশন করা উচিত, এই ঘটনার সাথে তার কোনও সম্পৃক্ততা আছে কি না? এমন মত দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তিনি দেশে ফিরে সেই ব্যবস্থাই করবেন।

সাংবাদিক সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী তার জাতিসংঘ অধিবেশনে যোগদানের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন। পাশাপাশি স্থানীয় সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন।

জাতিসংঘে বাংলাদেশে স্থায়ী মিশন কার্যালয়ে এই সাংবাদিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার ঢাকার একটি কর্মসূচিতে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. মঈন খান ওই বিষয়ে কথা বলেন। তিনি বর্তমান ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকার ‘জুজুর’ শিকার হয়েছে বলে মন্তব্য করে বলেন, ‘সরকার পশ্চিমা বিশ্বের কাছে মৌলাবাদের কথা বলে যে খাল কেটেছে সেখানেই তারা ডুবেছে।তার প্রমাণ পেয়ে গেছে, গতকাল (সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর) রাতে নিরপরাধ বিদেশি নাগরিক হত্যার মাধ্যমে।