শিশুর কাটা মাথা হাতে রাস্তায় নারী


daily

রাশিয়ার মস্কোর ইউকভ-২ মেট্রো স্টেশনের কাছে হঠাৎ দেখা যায় একজন বোরখা পরিহিত নারী ‘I AM A TERORRIST’ বলে চিৎকার করছেন। আর তার হাতে ৩ বছরের একটি শিশুকন্যার কাটা মাথা। তিনি নিজেই তার সন্তানকে হত্যা করেছেন বলে চিৎকার করছেন। পরে পুলিশ এসে তাকে গ্রেফতার করে। সোমবার স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ৯টার দিকে ওই নারীকে শিশুটির কাটা মাথা হাতে নিয়ে পায়চারী করতে দেখা যায়। জানা গেছে, ওই নারী উজবেকিস্তানের বাসিন্দা। শিশুটি তার নয়। তিনি ওই শিশুর নানী। রাস্তায় ওই নারী চিৎকার করতে করতে নিজেকে উড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিতে থাকেন। সঙ্গে সঙ্গে পুলিশ এসে মেট্রো স্টেশনটা বন্ধ করে দেয়। কিন্তু তাকে তল্লাশি করে কোনো বিস্ফোরক পাওয়া যায়নি। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, হঠাৎ এই নারী শিশুটির কাটা মাথা নিয়ে রাস্তায় চিৎকার করতে থাকেন। আর বলতে থাকেন, ‘আমার সন্তান মারা গেছে, এবার আমি সবাইকে মেরে ফেলব। আমি মানব বোমা। আমি গণতন্ত্রে ঘৃণা করি। আমি এক সেকেন্ডে নিজেকে সমেত সবাইকে উড়িয়ে দেব।’
ওই নারীর হুমকিতে সঙ্গে সঙ্গে বোমাতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে গোটা এলাকায়। সাধারণ মানুষ ভয় চিৎকার করতে শুরু করে। এর পরেই পুলিশ এসে গ্রেফতার করে তাকে। তবে ওই নারীর এমন চিৎকারের এখনো উদঘাটন করতে পারেনি পুলিশ। পুলিশ জানায়, শিশুটির মা-বাবা দু’জনেই চাকরিজীবী। নানীর কাছে সন্তানকে রেখে তারা কাজে যান। প্রায় ১৮ মাস ধরে ওই নারীর কাছে ছিল শিশুটি।