চেন্নাইকে হারানোর ‘পুরস্কার’ ধোনির জার্সি


 

সোমবার রাতে চলতি আইপিএলের ৩৭তম ম্যাচে চেন্নাই সুপার কিংসকে ৭ উইকেটে হারিয়েছে রাজস্থান রয়্যালস। ম্যাচে আগে ব্যাট করে ১২৫ রান করেছিল চেন্নাই। জবাবে ১৫ বল হাতে রেখেই লক্ষ্যে পৌঁছে গেছে রাজস্থান। এ জয়ে প্লে-অফ খেলার আশা বাঁচিয়ে রেখেছে ১০ ম্যাচে ৪ জয় পাওয়া রাজস্থান।

ম্যাচটিতে রাজস্থানের হয়ে জয়ের নায়ক ইংলিশ উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান জস বাটলার। আবুধাবির মন্থর উইকেটে দুই দলের প্রায় সব ব্যাটসম্যান যেখানে হাত খুলে খেলতে বেগ পেয়েছেন, সেখানে সাবলীল ব্যাটিং করেছেন বাটলার। ইনিংসের পঞ্চম ওভারে তিনি যখন যখন উইকেটে আসেন, তখন রাজস্থানের জয়ের বাকি ছিল ৯৮ রান।

এ রান করতে তাদের লেগেছে পাক্কা ১৩ ওভার। যেখানে অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ অপরাজিত ছিলেন ৩৪ বলে ২৬ রান করে। তার এমন মন্থর ব্যাটিংয়ের পরেও জয় পেতে সমস্যা হয়নি রাজস্থানের, কেননা অপরপ্রান্তে ৪৮ বলে ৭০ রানের ঝড় তুলেছিলেন বাটলার। ম্যাচ জেতানো ইনিংসটিতে ৭ চারের সঙ্গে জোড়া ছক্কাও হাঁকিয়েছেন তিনি।

স্বাভাবিকভাবেই অন্যদের চেয়ে নিজেকে আলাদা করা ইনিংস খেলায় ম্যাচসেরার পুরস্কার জিতেছেন বাটলার। পাশাপাশি পেয়েছেন গেমচেঞ্জার অব দ্য ম্যাচ এবং সর্বোচ্চ ছক্কার পুরস্কারও। তবে এসব আনুষ্ঠানিক পুরস্কারের বাইরে বিশেষ এক পুরস্কারও পেয়েছেন ইংল্যান্ডের এ উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান।

উইকেটের পেছনে দাঁড়িয়ে মুগ্ধ হয়ে বাটলারের ব্যাটিং দেখেছেন চেন্নাইয়ের অধিনায়ক ও উইকেটরক্ষক মহেন্দ্র সিং ধোনি। ম্যাচশেষে তিনি বাটলারকে উপহার হিসেবে দিয়েছেন নিজের ম্যাচ জার্সিটি। নিজ দলকে হারানোর পর প্রতিপক্ষকে খেলোয়াড়কে জার্সি উপহার দেয়ার নজির খুব একটা নেই ক্রিকেটে। সেটিই এবার করলেন ধোনি।

চেন্নাই অধিনায়কের এ জার্সির রয়েছে একটি বিশেষত্ব। রাজস্থানের বিপক্ষে ম্যাচটি ছিলো ধোনির আইপিএল ক্যারিয়ারের ২০০তম ম্যাচ। আইপিএলের প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে এ রেকর্ড গড়েছেন ধোনি। যে জার্সি পরে খেলেছেন ম্যাচটি, সে জার্সিই তিনি উপহার দিয়েছেন তার দলকে হারিয়ে দেয়া বাটলারকে।

তিনটি আনুষ্ঠানিক পুরস্কারের পাশাপাশি নিজ দলকে ম্যাচ জিতিয়ে অনানুষ্ঠানিক এ পুরস্কার পেয়ে উচ্ছ্বসিত বাটলার। ম্যাচশেষে জার্সি হাতে পোজ দিয়েছেন তিনি। সেই ছবি আবার পোস্ট করা হয়েছে রাজস্থান রয়্যালসের অফিসিয়াল টুইটার হ্যান্ডল থেকেও।