আপাতত ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করছে না ওমান, সুদান


যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন শেষ না হওয়া পর্যন্ত ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করছে না ওমান ও সুদান। শুক্রবার ইসরায়েলি সংবাদমাধ্যম মারিভ-এর এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানা গেছে।

খবরে বলা হয়েছে, ওমান ও সুদান মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুকে ‘মহামূল্যবান’ উপহার নির্বাচনে আগে দিচ্ছে না।

ইসরায়েলি সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, ওয়াশিংটনে নিযুক্ত সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাষ্ট্রদূত ইউসেফ আল-ওতাইবা নিশ্চিত করেছেন ওমান ও সুদান শিগগিরই ইসরায়েলের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপন করছে না।

দেশ দুটির সঙ্গে সম্ভাব্য সম্পর্ক স্বাভাবিকীকরণের চুক্তির বিষয়ে ইসরায়েলের উচ্চাভিলাসী একাধিক মন্তব্যের পর এই অবস্থান জানা গেলো। যদিও জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে ওমানের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্যে পূর্ব জেরুজালেমকে রাজধানী করে স্বাধীন ফিলিস্তিন রাষ্ট্রের পক্ষে অবস্থান নেওয়াতে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার প্রত্যাশা কিছু মাত্রায় ফিকে হয়ে এসেছে বলে মারেভ-এর প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।

অবশ্য সুদানের উপ-রাষ্ট্রপ্রধান জেনারেল মোহাম্মদ হামদান ডাগলো বৃহস্পতিবার বলেছেন, তার দেশ ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক প্রতিষ্ঠা করতে চায়। এক্ষেত্রে কাউকে ভয় করছে না সুদান। তিনি বলেন, আমরা কারও ভয়ে ভীত নই। কিন্তু এটি হবে সম্পর্ক, স্বাভাবিকীকরণ না।