চতুর্থবারের মতো বাফুফের সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন


বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) নির্বাচনে ছিল প্রতিদ্বন্দ্বিতার আভাস। কাজী সালাউদ্দিনকে চ্যালেঞ্জ জানিয়েছিলেন, তারই সাবেক দুই সহকর্মী। একজন বাদল রায়, অন্যজন শফিকুল ইসলাম মানিক। তাদের বাধা অতিক্রম করে আবারও বাফুফের মসনদে ৬৬ বছর বয়সী কাজী সালাউদ্দিন। আনুষ্ঠানিকভাবে এ তথ্য জানিয়েছেন বাফুফের প্রধান নির্বাচন কমিশনার মেজবাহ উদ্দিন।    

এই নিয়ে টানা চতুর্থবারের মতো বাফুফের সভাপতি নির্বাচিত হলেন দেশের ফুটবল ইতিহাসে সবচেয়ে বড় তারকা। আগামী চার বছরের জন্য তার হাতেই থাকবে ফুটবলের ব্যাটন। শনিবার সম্মিলিত পরিষদের প্রার্থী সালাউদ্দিন ভোট পেয়েছেন ৯৪টি। আর বাদল রায় ৪০ ও শফিকুল ইসলাম মানিক একটি ভোট পেয়েছেন।

 আগের তিনবারের নির্বাচনে দুইবার তাকে প্রতিদ্বন্দ্বিতার সম্মুখীন হতে হয়েছিল। প্রথমবার প্রয়াত মেজর জেনারেল(অব:)আমিন আহমেদ চৌধুরীকে হারিয়েছিলেন তিনি। দ্বিতীয় বার অবশ্য বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতাতেই জয়ী হয়েছিলেন। আর গতবার তো সার ব্যবসায়ী কামরুল ইসলাম পোটনকে হারিয়েছিলেন। এবারও নির্বাচনি চ্যালেঞ্জ জিতেই জয়ী হয়েছেন সালাউদ্দিন।

এছাড়া সিনিয়র সহ-সভাপতি হয়েছেন আগেরজনই- আব্দুস সালাম মুর্শেদী। তিনি হারিয়েছেন শেখ মোহাম্মদ আসলামকে। মুর্শেদী পেয়েছেন ৯১ ভোট আর আসলাম ৪৪ ভোট।