স্বাস্থ্য ও পাটমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি


 

স্বাস্থ্য ও পাটমন্ত্রীর পদত্যাগ এবং রাষ্ট্রীয় পাটকল বন্ধের সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবি জানিয়েছে বাম গণতান্ত্রিক জোট। দাবির প্রেক্ষিতে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে সমাবেশ ও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় অভিমুখে বিক্ষোভ করেন সংগঠনের নেতারা।

বৃহস্পতিবার (২ জুলাই) বাম গণতান্ত্রিক জোটের কেন্দ্রীয় পরিচালনা পর্ষদের উদ্যোগে মিছিলটি শাহবাগ মোড়ে পৌঁছলে পুলিশি বাধায় সেখানে সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়।

বাম গণতান্ত্রিক জোট কেন্দ্রীয় পরিচালনা পর্ষদের সমন্বয়ক ও বাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য বজলুর রশীদ ফিরোজের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সিপিবির সহকারী সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ জহির চন্দন, গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকি, বাসদের (মার্কসবাদী) কেন্দ্রীয় নেতা মানস নন্দী, গণতান্ত্রিক বিপ্লবী পার্টির সাধারণ সম্পাদক মোশরেফা মিশু, বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির পলিটব্যুরো সদস্য আকবর খান, কমিউনিস্ট লীগের কেন্দ্রীয় নেতা নজরুল ইসলাম, সমাজতান্ত্রিক আন্দোলনের আহ্বায়ক হামিদুল হক প্রমুখ।

নেতারা বলেন, পরিকল্পনাহীন লকডাউনের প্রেক্ষিতে মানুষের অর্থনৈতিক ক্ষমতা কমেছে। এর ওপর করোনা টেস্টে ফি লাগলে সাধারণ মানুষ আর টেস্ট করাতেই যাবে না। এতে করোনা সংক্রমণ বহুগুণে বেড়ে যাবে। করোনা শনাক্তকরণ পরীক্ষায় সরকারি হাসপাতালে ফি নির্ধারণের গণবিরোধী সিদ্ধান্ত অবিলম্বে বাতিল এবং রাষ্ট্রীয় দায়িত্বেই বিনামূল্যে সব নাগরিকের করোনা টেস্ট ও চিকিৎসা নিশ্চিত করতে হবে।

তারা বলেন, একদিকে করোনা দুর্যোগের মধ্যে সরকার পানির দাম বাড়াচ্ছে, জ্বালানির দাম যখন খুশি বাড়ানোর উদ্দেশ্যে সংসদে বিল তুলছে। জনগণ সরকারের এই গণবিরোধী সিদ্ধান্ত মেনে নেবে না। সমাবেশ থেকে নেতারা অযোগ্য ব্যর্থ স্বাস্থ্য এবং পাটমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করেন।