বার্সায় ফেরার ব্যাপারে সতীর্থের সঙ্গে গোপন আলাপ নেইমারের!


 

নেইমারের আর তর সইছে না। কবে আবার বার্সেলোনায় ফিরতে পারবেন? প্যারিস সেন্ট জার্মেইয়ের (পিএসজি) সঙ্গে যে সমঝোতাই হচ্ছে না কাতালান ক্লাবটির! যাবেন যাবেন করেও তাই যাওয়া হচ্ছে না ব্রাজিলিয়ান সুপারস্টারের।

২০১৭ সালে রেকর্ড ২৫০ মিলিয়ন ডলারে বার্সেলোনা ছেড়ে পিএসজিতে পাড়ি জমান নেইমার। তারপর থেকে বেশ কয়েকবারই বার্সায় ফেরার ইচ্ছে প্রকাশ করেছেন। তিন তিনটি লিগ ওয়ান শিরোপা জিতেও যে ফ্রান্সে মন বসছে না ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ডের।

এদিকে বার্সা প্রাণভোমরা লিওনেল মেসিও খুব করে চাইছেন নেইমারকে। ২০১৫ সালের পর থেকে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির মুখ দেখেনি কাতালান ক্লাবটি। দলের শক্তি বাড়াতে নেইমারের মতো একজন সতীর্থকে ফেরত আনার বিকল্প দেখছেন না আর্জেন্টাইন খুদেরাজ।

কিন্তু মিলছে না। ২০২২ সালে পিএসজির সঙ্গে চুক্তি শেষ হবে নেইমারের। ফরাসি ক্লাবটি তাদের মূল্যবান খেলোয়াড়ের সঙ্গে চুক্তি নবায়ন করতে চাইছে। নেইমার রাজি হননি এখন পর্যন্ত।

এমনকি এখন নিজ সতীর্থদের সঙ্গেও দল ছাড়ার বিষয়টি নিয়ে খোলাখুলি আলাপ করতে দ্বিধা করছেন না ব্রাজিলিয়ান সুপারস্টার। স্প্যানিশ গণমাধ্যম ‘মুন্দো দিপোর্তিভো’র প্রতিবেদন, নেইমার তার একজন ঘনিষ্ঠ পিএসজি সতীর্থকে বলেছেন, ‘আমি বার্সায় যেতে চাই।’

গত মৌসুমে নেইমারকে দলে আনার খুব কাছাকাছি অবস্থানে পৌঁছে গিয়েছিল বার্সা। ১৪৬ মিলিয়ন ডলারের সঙ্গে ইভান রাকিতিচ আর জন-ক্লায়ার তোবিদোকে দিতে চেয়েছিল তারা। পিএসজি রাজি না হওয়ায় পরে চুক্তিতে ওসমান ডেম্বেলের নামও ঢুকিয়ে দেয় বার্সা। কাজ হয়নি।

পিএসজি বারবারই পরিষ্কার করে বলছে, নেইমারকে নিতে হলে পুরো দাম দিয়েই নিতে হবে এবং সেটা নগদ ১৯৬ মিলিয়ন ডলার। কিন্তু এই বাজারে এত টাকা খরচ করতে চাইছে না বার্সেলোনা।

হয়তো এই মৌসুমে বাড়তি টাকা নিয়ে চেষ্টা করতো কাতালান ক্লাবটি। কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে আর্থিক ধকল গেছে সব ক্লাবেরই। তাই এবারও সম্ভবত নেইমারকে নগদ মূল্যে কেনা সম্ভব হবে না বার্সার। দেখা যাক, শেষ পর্যন্ত কী হয়!