আইলান কুর্দি হত্যা: তিন জনের ১২৫ বছরের কারাদণ্ড


সিরীয় সংকটের প্রতীক হয়ে ওঠা তিন বছরের শিশু আইলান কুর্দি নিহতের ঘটনায় তিন মানবপাচারকারীকে ১২৫ বছর করে কারাদণ্ড দিয়েছে তুরস্কের একটি আদালত। তাদেরকে উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হত্যার ঘটনায় দায়ী করা হয়েছে। দেশটির বার্তা সংস্থা আনাদোলু এজেন্সি এই তথ্য জানিয়েছে।

২০১৫ সালে যুদ্ধ বিধ্বস্ত সিরিয়া থেকে একটু ভালো জীবনের আশায় ইউরোপে পাড়ি দিতে চেয়েছিল শিশু আইলান কুর্দির পরিবার। নৌকায় করে ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে গ্রিসে যাওয়ার পথে ডুবে যায় যায় নৌকাটি। তিন বছরের আইলান কুর্দিসহ আরও পাঁচজনের প্রাণহানি হয়। তুরস্কের মুগলা প্রদেশের বোদরুমে সাগরের পাড়ে ভেসে আসা আইলান কুর্দির নিথর দেহ পুরো বিশ্বকে হতবাক করে দেয়।

ওই ঘটনার প্রায় সাড়ে চার বছর পর গত সপ্তাহে মানবপাচারে অভিযুক্ত তিন জনকে আটক করে তুরস্কের নিরাপত্তা বাহিনী। দক্ষিণাঞ্চলীয় আডানা প্রদেশ থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। আনাদোলুর খবরে বলা হয়েছে, উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হত্যার দায়ে শুক্রবার তাদের দণ্ড ঘোষণা করেছে বোদরুম হাই ক্রিমিনাল কোর্ট।

উল্লেখ্য, মানবপাচারের ওই ঘটনায বেশ কয়েক জন সিরীয় ও তুর্কি নাগরিককে আগেও সাজা দেওয়া হয়েছে। সম্প্রতি কারাদণ্ড পাওয়া তিন ব্যক্তি ঘটনার পর থেকেই পালিয়ে ছিল।

/জেজে/বিএ/