পৃথিবীর শেষ দিন পর্যন্ত চীনের পাশে থাকবে মিয়ানমার: সু চি


‘পৃথিবীর শেষ দিন পর্যন্ত’ চীনের পাশে  থাকার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন মিয়ানমারের নেত্রী অং সান সু চি। শনিবার সফররত চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সঙ্গে বৈঠক করেছেন তিনি। একাধিক বড় ধরনের অবকাঠামোগত চুক্তি স্বাক্ষর করতে দুই দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে গতকাল শুক্রবার মিয়ানমার পৌঁছেন চীনের প্রেসিডেন্ট।

বার্তা সংস্থা এএফপির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দীর্ঘ ৭০ বছর ধরে দুই প্রতিবেশী চীন ও মিয়ানমারের মধ্যে মিত্রতা অটুট রয়েছে। আন্তর্জাতিক অঙ্গনে সব সময় মিয়ানমারের সামনে ঢাল হয়ে দাঁড়িয়েছে চীন। দীর্ঘ এ সময়ে মিয়ানমারে ক্ষমতার পালাবদল হলেও মিত্রতার সম্পর্কে এর প্রভাব পড়েনি।

মিয়ানমারের রাষ্ট্রীয় সংবাদপত্র গ্লোবাল নিউ লাইট জানিয়েছে, মিয়ানমারে পৌঁছে গতকাল শুক্রবার নিজের সফরকে দুই প্রতিবেশীর মধ্যকার সম্পর্কের ‘ঐতিহাসিক মুহূর্ত’ বলে মন্তব্য করেন চীনা প্রেসিডেন্ট।  পরে গতকাল এক অনুষ্ঠানে সুচি বলেন, ‘বিনা বাক্য ব্যয়ে পৃথিবীর শেষ দিন পর্যন্ত প্রতিবেশী একটি দেশের পাশে দাঁড়াতে হয়।’

শি জিনপিং নয় বছর আগে চীনের ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে মিয়ানমার সফর করলেও, প্রেসিডেন্ট হিসেবে এটাই তাঁর প্রথম মিয়ানমার সফর।

২০১৭ সালে মিয়ানমারের সংখ্যালঘু রোহিঙ্গাদের ওপর দেশটির সরকারের নিপীড়নের কারণে পশ্চিমা রাষ্ট্রগুলোসহ আন্তর্জাতিক অঙ্গনে ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েন সুচি। বহির্বিশ্বের নিন্দার মুখেও মিয়ানমারের পাশে শক্ত অবস্থান নিয়েছে বেইজিং।