মার্কিন সেনারা মধ্যপ্রাচ্যে নিরাপদ নয়: হিজবুল্লাহ


লেবাননভিত্তিক শিয়া সম্প্রদায়ের স্বশস্ত্র গোষ্ঠী হিজবুল্লাহর সহ-সভাপতি শেখ আলী দামুস বলেছেন, মার্কিন সেনাদের মধ্যপ্রাচ্য কিংবা পশ্চিম এশিয়া থেকে সরিয়ে না নিলে তারা নিরাপদ থাকবে না। ইরানের ইসলামি বিপ্লবী বিপ্লবী গার্ড বাহিনীর (আইআরজিসি) কুদস ফোর্সের কমান্ডার জেনারেল কাসেম সোলাইমানিকে মার্কিন সেনারা হত্যা করার পর হিজবুল্লাহ নেতা এ সব কথা বলেন।

গত ৩ জানুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্দেশে মার্কিন বিমান হামলায় ইরানের সবচেয়ে প্রভাবশালী জেনারেল কাসেম সোলাইমানির সঙ্গে নিহত হন বাগদাদের প্রভাবশালী মিলিশিয়া গ্রুপ হাশদ আশ শাবির ডেপুটি কমান্ডার আবু মাহদি আল মুহান্দিসহ মোট দশ জন।  সোলাইমানিকে হত্যার প্রতিশোধ হিসেবে মার্কিন ঘাঁটিতে ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র হামলার প্রশংসা করেন হিজবুল্লাহর ওই নেতা। লেবাননের ধর্মীয় নেতা আরও বলেন, মধ্যপ্রাচ্য এখন দুই শিবিরে বিভক্ত। একদিকে রয়েছে মার্কিন নেতৃত্বাধীন একটি চক্র, অন্যদিকে রয়েছে ইরানের নেতৃত্বে একটি প্রতিরোধ ফ্রন্ট।

শেখ আলী দামুস বলেন, মার্কিন প্রশাসনের এটা জানা উচিত যে, এ অঞ্চলের জনগণের বিরুদ্ধে তাদের সন্ত্রাসবাদ এবং জেনারেল সোলাইমানি ও ইরাকের পপুলার মোবিলাইজেশন ইউনিটের সেকেন্ড-ইন-কমান্ড আবু মাহদি আল মুহান্দিসের হত্যাকাণ্ডের মধ্য দিয়ে তারা তাদের হতাশা ও ব্যর্থতা ঢাকতে পারবে না। আমেরিকা ও তার মিত্ররা যে সম্মান হারিয়েছে এসব হত্যাকাণ্ডের মাধ্যমে তারা তাদের আস্থা এবং সম্মান ফিরিয়ে আনতে পারবে না।

শেখ আলী দামুস বলেন, ‘মধ্যপ্রাচ্যে যে প্রতিরোধের ফ্রন্ট গড়ে উঠেছে তাদেরকে ভীত-সন্ত্রস্ত করা যাবে না তারা বরং এ অঞ্চলের জনগণের মধ্য থেকেই যুক্তরাষ্ট্রের মুখে মুষ্টাঘাত করা হবে। জেনারেল সোলাইমানি এবং মুহান্দিসের হত্যাকাণ্ড এ অঞ্চলে প্রতিরোধের নতুন অধ্যায় সৃষ্টি করবে এবং আরও অনেক বিজয় আসবে যার মাধ্যমে মধ্যপ্রাচ্য থেকে আমেরিকা সম্পূর্ণভাবে সরে যেতে বাধ্য হবে।’