রোনালদোরও পেনাল্টি মিস!


পেনাল্টি মিস করলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো! সিআর সেভেনের ভক্তদের কাছে তা অবিশ্বাস্যই মনে হতে পারে। কেননা পেনাল্টিতে গোল করাটা যে তার কাছে খুবই স্বাভাবিক ব্যাপার।আর লা লিগার ক্যারিয়ারে পেনাল্টি মিস করার ঘটনা রোনালদোর জন্য এটাই প্রথম।

তবে রিয়াল সোসিয়েদাদের বিপক্ষে পরে দুই গোল করেছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। দলও জিতেছে ৩-১ গোলের বড় ব্যবধাণে। অথচ পেনাল্টি মিস না-করলে হ্যাটট্রিক দিয়েই বছরটা শেষ করতে পারতেন সিআর সেভেন। নিজেদের  মাঠ সান্তিয়াগো বার্নাবূতে রিয়ালের হয়ে তৃতীয় গোলটি করেন লুকাস ভাসকেস।

তবে এই জয়ে ১৭ ম্যাচে ৩৬ পয়েন্ট নিয়ে লা লিগার শীর্ষে উঠে রাফায়েল বেনিতেজের দল। যদিওবা পরে মাঠে নামে শীর্ষে থাকা বার্সেলোনাও। শীতকালীন ছুটিতে যাওয়ার আগে রায়ো ভায়েকানোকে ১০-২ গোলে উড়িয়ে দিয়েছিল রিয়াল। তাই এই ম্যাচের শুরু থেকেই দারুণ ছন্দে ছিল বেল-রোনালদোরা। প্রথম আট মিনিটেই দুবার এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ পায় রিয়াল মাদ্রিদ। কিন্তু দুবারই প্রতিপক্ষের গোলরক্ষকের কাছে আটকে যায় মাদ্রিদ।

ম্যাচের ২৪ মিনিটে সোসিয়েদাদের স্প্যানিশ ডিফেন্ডার ইউরি ডি বক্সে করিম বেনজেমাকে ফেলে দিলে পেনাল্টি পায় রিয়াল। কিন্তু ক্রসবারের উপর দিয়ে বল উড়িয়ে দিয়ে এগিয়ে যাওয়ার সহজ সুযোগ হাতছাড়া করেন  রোনালদো। যা লা লিগায় তার প্রথম পেনাল্টি মিসের ঘটনা। যদিও ৪২ মিনিটে সেই পেনাল্টি থেকেই গোল করে দলকে এগিয়ে দেন সিআর সেভেন। এক গোলে এগিয়ে থেকে দ্বিতীয়ার্ধে নামলেও শুরুতেই ম্যাচে সমতা ফেরায় সোসিয়েদাদ।

দ্বিতীয়ার্ধের ৪৯ মিনিটে ডি-বক্সের ভেতর থেকে গোল করেন  সোসিয়েদাদের ব্রুমা। ৬৭ মিনিটে আবার সেই রোনালদোর করা গোলেই এগিয়ে যায় স্বাগতিকরা। কর্নার থেকে বল পেয়ে নীচু ভলিতে লিগে নিজের ১৪তম গোলটি করেন তিনবারের ফিফা ব্যালন ডি’অর জয়ী এই তারকা ফুটবলার। আর ৮৬ মিনিটে রিয়ালের জয় নিশ্চিত করেন লুকাস ভাসকেস। বাঁ দিক থেকে গ্যারেথ বেলের ক্রস ডি বক্সের একটু বাইরে ধরে ভেতরে ঢুকে নীচু শটে গোলরক্ষককে পরাস্ত করে প্রতিপক্ষের জালে বল জড়ান তিনি।