লড়াই করে মাতৃভূমি রক্ষার অধিকার ফিলিস্তিনিদের রয়েছে: হামাস


ইসরায়েলের বিরুদ্ধে সশস্ত্র লড়াইয়ের মাধ্যমে মাতৃভূমি রক্ষার অধিকার ফিলিস্তিনি জনগণের রয়েছে। রবিবার এক বিবৃতিতে নিজেদের এমন অবস্থান পুনর্ব্যক্ত করেছে হামাস। এর আগে শনিবার রাতে ইসরায়েলি সেনারা এক ফিলিস্তিনি তরুণকে গুলিবর্ষণে হত্যা করে তার লাশ নিয়ে যায়। এর প্রেক্ষিতেই রবিবার দখলদার বাহিনীর বিরুদ্ধে লড়াই অব্যাহত রাখার যৌক্তিকতা তুলে ধরে হামাস।

টানা এক যুগের ইসরায়েলি অবরোধে পৃথিবীর বৃহত্তম উন্মুক্ত কারাগারে রূপান্তরিত হয়েছে ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকা। অবরোধ প্রত্যাহারের দাবিতে ২০১৮ সাল থেকে সীমান্তে প্রতি শুক্রবার সাপ্তাহিক বিক্ষোভ করে আসছে ফিলিস্তিনিরা। তখন থেকে এ পর্যন্ত সেখানকার বেসামরিক অঞ্চলে গুলি করে ৩৪৮ ফিলিস্তিনিকে হত্যা করেছে দখলদার ইসরায়েলি বাহিনী। আহত হয়েছে আরও কয়েক হাজার ফিলিস্তিনি।

শনিবার রাতে পশ্চিম তীরের হেবরন শহরে বাদাউয়ি মাসালমে নামের ১৮ বছরের ওই ফিলিস্তিনি তরুণকে গুলি করে হত্যা করে দখলদার সেনারা।

হামাসের বিবৃতিতে বলা হয়, দখলদার বাহিনী এবং অবৈধ বসতি স্থাপনকারী চক্র অধিকৃত পশ্চিম তীর এবং জেরুজালেম শহরে তাদের উন্মত্ত আগ্রাসন জোরদার করেছে। তাদের এই অব্যাহত আগ্রাসনের ফলে ফিলিস্তিনিদের শহীদ হওয়ার সংখ্যা বাড়ছে। একইসঙ্গে বাড়ছে আহত মানুষ ও বন্দির সংখ্যা। ধ্বংস হচ্ছে ক্ষেতের ফসল এবং ফিলিস্তিনিদের সম্পত্তি।

হামাস বলছে, শনিবার রাতে শহীদ হওয়া ওই ফিলিস্তিনি তরুণের জীবনের স্বপ্ন ছিল নিজ মাতৃভূমিকে দখলদারমুক্ত হিসেবে দেখা। এই স্বপ্ন একমাত্র প্রতিরোধের মাধ্যমেই বাস্তব রূপ লাভ করতে পারে।