বাগদাদি হত্যায় মার্কিন অভিযানের প্রমাণ নেই : রাশিয়া


 

উত্তর-পশ্চিম সিরিয়ার একটি গোপন আস্তানায় অভিযান চালিয়ে আইএসের প্রধান আবু বকর আল বাগদাদিকে হত্যা করেছে মার্কিন বাহিনী। প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এ ঘোষণা দিয়েছেন। কিন্তু রাশিয়া বলছে, বাগদাদিকে হত্যায় যুক্তরাষ্ট্রের অভিযানের কোনো বিশ্বাসযোগ প্রমাণ নেই।

গতকাল হোয়াইট হাউসের সংবাদ সম্মেলনে ট্রাম্প জানান, কয়েক সপ্তাহ ধরেই বাগদাদির ওপর নজরদারি করছিল যুক্তরাষ্ট্র। ট্রাম্পের দেয়া তথ্যমতে, আইএস প্রধান আবু বকর আল বাগদাদি তার আস্তানার গোপন সুরঙ্গ দিয়ে পালানোর সময় তিন সন্তানসহ শরীরে বাঁধা বিষ্ফোরকের মাধ্যমে আত্মঘাতী হন।

আইএস প্রধানের হত্যার খবর জানিয়ে ট্রাম্প মার্কিন এই অভিযানে সহযোগিতার জন্য তুরস্ক, রাশিয়া, ইরাক, সিরিয়া এবং সিরিয়ান কুর্দি যোদ্ধাদের ধন্যবাদ জানান। তবে রাশিয়া ট্রাম্পের এমন ঘোষণার পর জানায়, যুক্তরাষ্ট্র যে অভিযান চালিয়েছে তার বিশ্বাসযোগ্য কোনো প্রমাণ তাদের কাছে নেই।

রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় মার্কিন অভিযানে আবুর বকর আল-বাগদাদি নিহত হওয়ার খবর নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছে। তারা বলছে, ‘যুক্তরাষ্ট্র যে অভিযান চালিয়েছে তার বিশ্বাসযোগ্য কোনো তথ্য-প্রমাণ তাদের কাছে নেই।’ রাশিয়ার এমন দাবির পর এ নিয়ে আলোচনার শুরু হয়েছে।

মস্কোর বিবৃতিতে মেজর জেনারেল ইগোর কোনাশেনকোভ বলেন, ‘সিরিয়ার ইদলিবে তুরস্ক নিয়ন্ত্রণাধীন এলাকায় যুক্তরাষ্ট্রের অভিযানে আইএস নেতা আবুর বকল আল-বাগদাদি নিহত হয়েছেন বলে ওয়াশিংটন যে দাবি করছে তার বিশ্বাসযোগ্য কোনো তথ্য-প্রমাণ রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের হাতে নেই।’

এদিকে ইরানের তথ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ জাভেদ আজারি যুক্তরাষ্ট্রের উদ্দেশে বলেছেন, ‘আল-বাগদাদি হত্যা কোনো বড় ব্যাপার নয়। আপনারা আপাদের নিজেদের সৃষ্টিকেই হত্যা করেছেন।’ মন্ত্রী এ বিষয়ে ব্যাখা না দিলেও ইরান বরাবরই দাবি করে আসছে আইএস প্রতিষ্ঠা করেছে যুক্তরাষ্ট্র।