কোনো এমপির বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণ হলে দল থেকে বহিষ্কার : ওবায়দুল কাদের


 

কোনো এমপির বিরুদ্ধে দুদক বা এনবিআরের অভিযোগ প্রমাণিত হলে তাকে দল থেকে বহিষ্কার করা হবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

সোমবার (২৮ অক্টোবর) সচিবালয়ে ব্রিফিংয়ে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা জানান।

বেশ কয়েকজন এমপির ব্যাংক হিসাব তলব করেছে এনবিআর। দুদক তাদের দুর্নীতির বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করেছে। তাদের বিরুদ্ধে দল কোনো ব্যবস্থা নেবে কি না- জানতে চাইলে কাদের বলেন, ‘দেখুন আমাদের দলীয়ভাবে ব্যবস্থা নেয়ার পর্যায় যখন আসবে, অভিযোগ এসেছে, অভিযোগটা যখন চার্জশিটে চলে যাবে, অভিযোগটা প্রমাণ হবে, যখন তার দণ্ড হবে, তখন তাকে আমরা দল থেকে বহিষ্কার করবো। কিন্তু অভিযোগ প্রমাণ হওয়ার আগে আপনি কীভাবে শাস্তি দেবেন? যে অভিযোগ এসেছে, সেটাতো পুরোপুরি সত্য নাও হতে পারে।’

‘এতে দলে দলের ভাবমূর্তি খারাপ হবে বলে আমি মনে করি না। এতে করে সরকারের সৎ সাহসের পরিচয় পাওয়া যাচ্ছে। বরং ভাবমূর্তি আরও উজ্জ্বল হবে। সরকার এ ব্যাপারে কঠোর অবস্থানে। তাই এ ক্ষেত্রে ভাবমূর্তি অনুজ্জ্বল হবে না,’- যোগ করেন তিনি।

‘একজন সংরক্ষিত নারী আসনে সংসদ সদস্যের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণ হয়েছে যে, তিনি পরীক্ষায় জালিয়াতি করেছেন। তার জায়গায় আটজন অন্য পরীক্ষার্থী পরীক্ষা দিয়েছেন। এটা উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রমাণীত হয়েছে। তাই তাকে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় বহিষ্কার করেছে। তার বিরুদ্ধে আপনারা কোনো ব্যবস্থা নেবেন কি না?’ এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, ‘সেটাতো দলীয় ব্যাপার আছে আমাদের। দলের পরবর্তী ওয়ার্কিং কমিটির মিটিং এ বিষয়টি আলোচনা করবো।’

‘তিনি দলের এমপি। তাই দলীয় সভায় তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হতে পারে। আর যদি পার্লামেন্টারি গণতন্ত্রে জাতীয় সংসদের অবিভাবক স্পিকার রয়েছেন। তার গোচরে বিষয়টি নিশ্চয় আছে। তিনিও ব্যবস্থা নিতে পারেন। সেটাও দেখার বিষয়’,- বলেন ওবায়দুল কাদের।