বাঘ দিবসের অনুষ্ঠানে মোদি, কর্মসূচি নেই দেশে


বিশ্বের শ্রেষ্ঠ বন্যপ্রাণীদের একটি বাঘ। আর এই বাঘের জন্য বিখ্যাত বাংলাদেশের সুন্দরবন। আজ বিশ্ববাঘ দিবসে পাশের দেশ ভারতে নরেদ্র মোদি এ বিষয়ক অনুষ্ঠানে অংশ নিলেও বাংলাদেশে কোনো কর্মসূচি ছিল না। এজন্য ক্ষোভ প্রকাশ করেছে পরিবেশ বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটি।

সোমবার সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত কমিটির ৬ষ্ঠ বৈঠকে এই ক্ষোভ প্রকাশ করা হয়। কমিটির সভাপতি সাবের হোসেন চৌধুরী নিজেই এ নিয়ে প্রশ্ন তোলেন। বৈঠক শেষে কমিটির সভাপতি সাবের হোসেন চৌধুরী এমপি সাংবাদিকদের বলেন, আজ সারাবিশ্বে বাঘ দিবস পালিত হচ্ছে অথচ আমাদের মন্ত্রণালয়ের কোনো কর্মসূচি নেই। আমরা জানতে চেয়েছিলাম, মন্ত্রণালয় বলেছে কয়েক দিন পর কর্মসূচি দেবে। আন্তর্জাতিকভাবে যেখানে পালিত হচ্ছে সেখানে তাদের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে দিবস পালন করতে না পারলে তো গুরুত্ব থাকে না।

কমিটির আরেক সদস্য নাজিম উদ্দিন আহমেদ এমপি বলেন, বিশ্বের শ্রেষ্ঠ বন্যপ্রাণীদের একটি প্রজাতি বাঘ। আর এই বাঘের জন্য বিখ্যাত বাংলাদেশের সুন্দরবন। আজ বিশ্ববাঘ দিবসে পাশের দেশ ভারতে নরেদ্র মোদি অনুষ্ঠানে অংশ নিলেও বাংলাদেশে কোনো কর্মসূচি ছিল না। এজন্য ক্ষোভ প্রকাশ করেছি আমরা।

এদিকে সংসদ সচিবালয় থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বাংলাদেশ বনশিল্প উন্নয়ন কর্পোরেশনের (বিএফআইডিসি) অধীন দখলকৃত ও বেদখলকৃত জমির প্রাথমিক পরিসংখ্যান সম্পর্কে জানাতে চেয়েছে কমিটি। আগামী ৩ মাসের মধ্যে সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে উপস্থাপনের সুপারিশ করা হয়।

কমিটি সুন্দবনের পরিবেশ সংরক্ষণে সুন্দরবন এলাকায় অবস্থিত শিল্প কারখানাগুলোর পরিবেশ দূষণ মানব স্বাস্থ্যের জন্য কতটা ক্ষতিকর তা পরিসংখ্যানের জন্য জরিপ পরিচালনার সুপারিশ করে।

বৈঠকে চকোরিয়া সুন্দরবনের পরিবেশ পুনরুদ্ধার ও সংরক্ষণে বন অধিদফতরের সহায়তায় স্থানীয় নির্বাচিত সংসদ সদস্যকে একটা পূর্ণাঙ্গ রিপোর্ট প্রণয়ণ করে কমিটিতে উপস্থাপন এবং কমিটির সদস্যদের অভিজ্ঞতা অর্জনের জন্য বিদেশ ভ্রমণের সুনির্দিষ্ট নীতিমালা প্রণয়ণ করার সুপারিশ করা হয়।

বৈঠকে আরও উপস্থিত ছিলেন কমিটি সদস্য পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন, উপমন্ত্রী হাবিবুন নাহার, জাফর আলম এবং মো. রেজাউল করিম বাবলু। বৈঠকে পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের সচিব, পরিবেশ অধিদফতরের মহাপরিচালক, বিএফআইডিসির চেয়ারম্যানসহ মন্ত্রণালয় ও জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।