চাকা খুলে অর্ধশত যাত্রী নিয়ে উল্টে গেল বাস


সাতক্ষীরা-আশাশুনি সড়কে একটি যাত্রীবাহী মিনিবাস চাকা খুলে উল্টে মাছের ঘেরে পড়েছে। এতে কমপক্ষে ২০ জন আহত হয়েছেন। বুধবার বিকেলে আশাশুনি উপজেলার চিলেডাঙ্গা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

দুর্ঘটনা কবলিত বাসের যাত্রী গাবতলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সুমিতা চৌধুরী বলেন, সাতক্ষীরা থেকে যাত্রীবাহী মিনিবাসটি অর্ধশতাধিক যাত্রী নিয়ে আশাশুনির উদ্দেশ্যে রওনা হয়। পথিমধ্যে হঠাৎ বাসের চাকা খুলে গেলে চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেন। এ সময় বাসটি রাস্তার পাশে মাছের ঘেরে উল্টে পড়ে। স্থানীয়রা এসে যাত্রীদের উদ্ধার করেন। এতে বাসের মধ্যে থাকা যাত্রীদের মধ্যে কমপক্ষে ২০ জন কমবেশি আহত হয়েছে।

অপর যাত্রী বাকড়া এলাকার আখিল দত্ত জানান, বাসটির ফিটনেস ছিল বলে মনে হয় না। ফিটনেস বিহীন বাস কিভাবে রাস্তায় নামে আমরা জানি না। প্রশাসনের কোনো তদারকি নেই। এছাড়া বাস মালিকরাও টাকার জন্য মানুষদের জীবন হুমকির মধ্যে ফেলে দেন। এতগুলো মানুষ মারা গেলে দায়ভার কে নিত?

এ বিষয়ে আশাশুনি থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বিপ্লব কুমার নাথ  বলেন, দুর্ঘটনায় কেউ নিহত হয়নি। তবে কমবেশি আহত হয়েছে। দুর্ঘটনার পর বাসটির চালক আব্দুস সবুর সরদার ও হেলপার পালিয়েছেন।