পাকিস্তানকে বয়কট করতে আইসিসিকে চাপ দিচ্ছে ভারত


যে দেশ সন্ত্রাসীদের আশ্রয় দেয়, সেই দেশের বিরুদ্ধে কঠোর হতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলকে (আইসিসি) অনুরোধ করেছিল ভারত। তবে ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের (বিসিসিআই) অনুরোধ সম্প্রতি প্রত্যাখ্যান করে দিয়েছে বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা।

গেল ১৪ ফেব্রুয়ারি দক্ষিণ কাশ্মীরের পুলওয়ামায় পাক মদতপুষ্ট জঙ্গি গোষ্ঠীর হামলার পর ভারতে পাকিস্তানবিরোধী স্লোগান ওঠে। হামলায় নিহত ৪০ সেনার প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে রাজনৈতিকভাবে জবাব দেয়ার পাশাপাশি চিরবৈরি পড়শীদের ক্রিকেটেও বয়কটের দাবি তোলেন ভারতীয়রা। ফলে আসন্ন বিশ্বকাপে পাক- ভারত মহারণ নিয়ে সংশয় দেখা দেয়।

পুলওয়ামা কাণ্ডের পর বিশ্বকাপে ক্রিকেটারদের বাড়তি নিরাপত্তা এবং সন্ত্রাসবাদকে আশ্রয় দেয়া দেশের বিপক্ষে কোনো দলের খেলা উচিত নয়। এ মর্মে আইসিসিকে চিঠি দেয় বিসিসিআই। প্রথম দাবি মেনে নিলেও দ্বিতীয়টি নাকচ করে দিয়েছে ক্রিকেটের অভিভাবক সংস্থা। ভারতীয় বোর্ডের প্রথম দাবি অনুযায়ী, ক্রিকেটারদের বাড়তি নিরাপত্তা দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে আইসিসি। তবে ক্রিকেটের নিয়ামক সংস্থা স্রেফ জানিয়ে দিয়েছে, দ্বিতীয়টিতে তাদের কোনো হাত বা এখতিয়ার নেই। অধিকার তো নেই-ই।

তবে এতেই ক্ষ্যান্ত হচ্ছে না বিসিসিআই। পিছু হটছেন না বোর্ড কর্তারা। ক্রিকেটে একঘরে তথা ২২ গজে পাকিস্তানকে কোণঠাসা করতে আইসিসিকে চাপ দিতে উদ্যোগী হয়েছেন তারা। ৭ মার্চ বৈঠকে বসবে বোর্ডের প্রশাসনিক কমিটি। সেখানেই এর রণকৌশল নিয়ে আলোচনা হবে।

আসছে ৩০ মে ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলসে গড়াবে আইসিসি বিশ্বকাপ-২০১৯। দ্বাদশ ওয়ানডে বিশ্বকাপেও সবচেয়ে বড় হাইভোল্টেজ ম্যাচ ইন্দো-পাক লড়াই। ১৬ জুন গ্রুপপর্বে ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে হওয়ার কথা দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীর ব্যাট-বলের যুদ্ধ। চূড়ান্ত পরিস্থিতি এখন কোনদিকে মোড় নেয় তাই দেখার।