সিরিয়ায় নিষিদ্ধ ফসফরাস বোমা নিক্ষেপ করেছে মার্কিন জোট


সিরিয়ায় দায়েশের (ইসলামিক স্টেট বা আইএস) বিরুদ্ধে মার্কিন নেতৃত্বাধীন জোট দেশটির পূর্বাঞ্চলের সবচেয়ে বড় শহর দেইর আল-জুরে আন্তর্জাতিকভাবে নিষিদ্ধ ‘সাদা’ ফসফরাস বোমা নিক্ষেপ করেছে।

১৩ অক্টোবর, শনিবার স্থানীয় সূত্রগুলো সিরিয়ার রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম সানাকে বলেছে, দেইর আল-জুরের হাজিন শহরে মার্কিন জোট ওই বোমা ফেলে। তবে এই ঘটনায় ক্ষয়ক্ষতির কোনো খবর পাওয়া যায়নি। ইরানভিত্তিক সংবাদমাধ্যম পার্স টুডের এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

এর আগে গত ৮ সেপ্টেম্বর রাশিয়া অভিযোগ করেছিল, সিরিয়ার এই প্রদেশেই যুক্তরাষ্ট্র ফসফরাস বোমা নিক্ষেপ করেছিল।রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের পদস্থ কর্মকর্তা ভ্লাদিমির স্যাভচেঙ্কো জানিয়েছিলেন, মার্কিন বিমান বাহিনীর দুটি এফ-১৫ জঙ্গিবিমান হাজিন গ্রামে চালানো হামলায় নিষিদ্ধ ফসফরাস বোমা ব্যবহার করেছে। হামলার ফলে ওই গ্রামে ব্যাপক অগ্নিকাণ্ডের সৃষ্টি হয়েছে।

গত জুন মাসে মানবাধিকার সংস্থা হিউম্যান রাইটস ওয়াচ (এইচআরডব্লিউ) জানিয়েছিল, ইরাক ও সিরিয়ায় কথিত সন্ত্রাসবিরোধী অভিযানে জড়িত মার্কিন নেতৃত্বাধীন জোট ওই দুই দেশে সাদা ফসফরাস-সমৃদ্ধ বোমা নিক্ষেপ করছে।

তখন হিউম্যান রাইটস ওয়াচের সমরাস্ত্রবিষয়ক পরিচালক স্টিভ গুস বলেছিলেন, এটা গুরুত্বপূর্ণ নয় কীভাবে সেখানে ফসফরাস ব্যবহার করা হলো। ফসফরাস ব্যবহার করা হলে ইরাকের মসুল ও সিরিয়ার রাকা শহরের মতো ঘন বসতিপূর্ণ শহরগুলোতে সাধারণ মানুষের দীর্ঘমেয়াদি মারাত্মক ক্ষতি করবে।