বিএনপির নেতৃত্বে ঐক্যের প্রস্তাব আসলে চক্রান্ত: তথ্যমন্ত্রী


বিএনপির নেতৃত্বে বৃহত্তর ঐক্যের যে প্রস্তাব এসেছে, তা আসলে দণ্ডিত খালেদা জিয়ার মুক্তি, যুদ্ধাপরাধীদের বিচার বন্ধ ও নির্বাচন বানচালের চক্রান্ত বলে মন্তব্য করেছেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু।
৯ সেপ্টেম্বর, রবিবার রাজধানীর রামপুরায় বাংলাদেশ টেলিভিশন মিলনায়তনে ‘বিটিভি জেলা প্রতিনিধি সম্মেলন-২০১৮’ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মন্ত্রী এ মন্তব্য করেন।

হাসনুল হক ইনু বলেন, ‘২০০৮ সালের নির্বাচনের গণরায় ছিল একটি বাঁক বদলের রায়। জনগণের এ রায়ে বিএনপি-রাজাকার চক্র পিছু হটলেও তারা চক্রান্ত ছাড়েনি। তারা রাজনীতিতে বিষবৃক্ষের মতো একাত্তরের রাজাকার, পঁচাত্তরের খুনি, জঙ্গি ও আগুন সন্ত্রাসীদের আশ্রয় দিয়ে দেশে অস্বাভাবিক সরকার আনার ষড়যন্ত্র করে চলেছে। সে কারণে তাদের হাতে দেশ কোনোদিনই নিরাপদ নয়।’

তথ্যমন্ত্রী বিটিভির জেলা প্রতিনিধিদের মিথ্যাচার, গুজব ও তথ্য বিকৃতি থেকে দেশবাসীকে রক্ষায় নিয়োজিত সৈনিক হিসেবে অভিহিত করে বলেন, ‘রাষ্ট্র ও সংবিধানের পক্ষে থাকুন, শেখ হাসিনার বিস্ময়কর উন্নয়নে মানুষের জীবনের বাঁক বদলের গল্প তুলে আনুন, একই সঙ্গে দেশবিরোধীদের হাতে জীবন ধ্বংসের করুণ কাহিনীও আমাদের জানান।’

ইনু জানান, প্রতিটি জেলার জনমানুষের সব খবর আরও বিস্তারিতভাবে তুলে ধরতে সরকার প্রতিটি বিভাগে বিটিভির কেন্দ্র স্থাপনের উদ্যোগ নিয়েছে।

বিটিভি জেলা প্রতিনিধি সমিতির সভাপতি এম এ সালামের সভাপতিত্বে সম্মেলনে তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম, প্রধানমন্ত্রীর তথ্যবিষয়ক উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী, তথ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য সালাহউদ্দিন আহমেদ মুক্তি, তথ্য সচিব আবদুল মালেক এবং বিটিভির মহাপরিচালক এস এম হারুন-অর-রশীদ বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন।