রোজা রেখেই কি খেলবেন সালাহ-বেনজেমেরা?


মোহাম্মদ সালাহ ও করিম বেনজেমা।
উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে ওঠেছে রিয়াল মাদ্রিদ ও লিভারপুল। ২৬ মে ইউক্রেনের কিয়েভে অনুষ্ঠিত হবে ম্যাচটি। তখন চলবে রমজান মাস। রোজার প্রসঙ্গটিও তাই জায়গা করে নিয়েছে ফুটবলপ্রেমীদের আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে। কারণ দুই দলের অন্তত পাঁচজন ফুটবলার আছেন যারা ধর্মপ্রাণ মুসলিম। তারা হলেন লিভারপুলের মোহাম্মদ সালাহ, সাদিও মানে ও এমরি ক্যান। অন্যদিকে রিয়াল শিবিরে আছেন আরও দুজন মুসলিম, করিম বেনজেমা ও আশরাফ হাকিমি

প্রশ্ন উঠেছে, সালাহ-বেনজেমারা কি রোজা রেখেই খেলবেন? কারণ ফাইনালের এই মহারণের পর্দা যখন উঠবে তখনো ইফতারের সময় হবে না কিয়েভে। খেলা চলাকালীন পেরিয়ে যাবে ইফতারের সময়। তারা রোজা রেখে খেললে ফাইনালে এর প্রভাব কতটা পড়বে, এ নিয়ে চলছে আলোচনা।

দুর্দান্ত ফর্মে আছেন লিভারপুলের মিসরীয় তারকা সালাহ। দলকে ১১ বছর পর ফাইনালে তোলায় তার অবদান অনস্বীকার্য। সালাহর সঙ্গে জুটি গড়ে নিজের জাত চিনিয়েছেন সাদিও মানেও। কাজেই এই দুজন রোজা রেখে খেলবেন কি না, তা নিয়েও চলছে বিস্তর জল্পনা-কল্পনা।

অন্যদিকে বায়ার্ন মিউনিখের বিপক্ষে দ্বিতীয় লেগে জোড়া গোল করেছেন বেনজেমা। কাজেই তাকে বসিয়ে রাখবেন না রিয়াল মাদ্রিদের কোচ জিনেদিন জিদান। এই ফ্রেঞ্চ স্ট্রাইকারও নামাজ-রোজা পালন করেন। এ ছাড়া হজ্ব, উমরাহও পালন করতে দেখা গেছে তাকে।

ইউরোপীয় ফুটবলে ফুটবলারদের রোজা রাখার বিষয়টি ঘুরেফিরে প্রতিবছরই আসে। তবে ততটা আলোচিত হয় না। কিন্তু এবার এই প্রসঙ্গ হালে পানি পেয়েছে সালাহ-বেনজেমাদের কারণে। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনাল বলে কথা।